ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির বাড়িতে হামলায় আটক বরকত ও রুবেল

ফরিদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবল সাহার বাড়িতে হামলার ঘটনায় আটক করা হয়েছে বরকত ও রুবেল নামের দুইজনকে। গত ১৬ মে রাত সোয়া ৯টার দিকে শহরের গোয়ালচামট মহল্লার মোল্লা বাড়ি সড়কে তার বাড়িতে এ হামলা হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়। স্থানীয়ভাবে জানা যায়, এলাকায় আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে ত্রাস সৃষ্টি করে আসছিলো এই দুইজন।

আওয়ামী লীগ নেতার বাড়িতে হামলা প্রসঙ্গে ফরিদপুর জেলার পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান জানান, মামলার যাদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম দুইজন বরকত ও রুবেলকে আজ গ্রেফতার করা হয়েছে।

আটক দুই ব্যক্তির বিরুদ্ধে পূর্বে কোন অভিযোগ রয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তাদের বিরুদ্ধে স্থানীয়দের কাছে শুনলে অনেক অভিযোগ পাবেন। জেলায় টেন্ডারবাজি, ভূমি দখল, চাঁদাবাজিসহ আরো বেশ কিছু অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আওয়ামী লীগের নাম ব্যবহার করে এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করেছে বরকত ও রুবেল। তারা বিগত ৬ বছর এলাকার কিছু আওয়ামী লীগ নেতার ছত্র ছায়ায় থেকে টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজি ও ভূমি দখল চালিয়ে গেছে। তারা কতটা বেপরোয়া হতে পারে এর প্রমাণ সুবল সাহার বাসায় সকলের সামনে হামলা করা। এরা এলাকায় কোন কিছুর পরোয়া করে না।

আটক দুইজনের মধ্যে বরকতের মামা একজন যুদ্ধাপরাধী। এই যুদ্ধাপরাধীদের আত্মীয়কে নিজেদের স্বার্থে এলাকার নেতা বানিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করার পাশাপাশি দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগ করে যাওয়া স্থানীয়দের বঞ্চিত করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন স্থানীয় নেতাকর্মীরা।

স্থানীয়ভাবে আরো জানা যায়, ফরিদপুর জেলায় এলজিইডির যাবতীয় টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ করে এই দুইজন। বিগত ৬ বছরে তারা শুধু টেন্ডারবাজির মাধ্যমে কয়েক হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছে। দুদকে তাদের সম্পদের তদন্ত চলছে বলেও জানা যায়।

ইত্তেফাক/আরএ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: