বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ভুটানি রাষ্ট্রদূতকে ফেরত দিলো ভারত

বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ভুটানি রাষ্ট্রদূত ভারতের চ্যাংরাবান্ধা ইমিগ্রেশন হয়ে ও বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশর কথা থাকলেও ভারতীয় কতৃপক্ষের বাঁধার কারণে তাকে ফেরত যেতে হয়েছে। একই ইমিগ্রেশন পথ দিয়ে বাংলাদেশ থেকে বিদায়ি ভুটানি ট্রেড কন্সুলেটর বুড়িমারী স্থলবন্ধর ইমিগ্রেশন দিয়ে ভারতে প্রবেশের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে পরে রংপুর থেকে ফিরে যান।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় বাংলাদেশে নবনিযুক্ত ভুটানি রাষ্ট্রদুত এইচ.ই মি. রিনচেন কুয়েন্টসি ও ভুটান দূতাবাসের নবনিযুক্ত ট্রেড কন্সুলেটর মি. কেনছো থিংলে রাষ্ট্রদূতের সফরসঙ্গী হিসেবে ভুটান থেকে সড়ক পথে ভারতের চ্যাংরাবান্ধা পুলিশ ইমিগ্রেশন হয়ে ও বুড়িমারী স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশে আসার কথা ছিলো। কিন্তু ভারতীয় কতৃপক্ষের অনুমতি না থাকায় তাদের ভুটানে ফেরত যেতে হয়েছে। অপরদিকে একই দিনে উক্ত দূতাবাসের বিদায়ী ট্রেড কন্সুলেটর মি. দমাং বুড়িমারী স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন হয়ে ভারতে প্রবেশ করে ভুটানে ফিরে যাওয়া কথা থাকলেও ভারতীয় কর্তৃপক্ষের অনুমতি না থাকায় তিনিও যেতে পারেননি।

আরও পড়ুন: রাজশাহী শহরে রাতে যান চলাচল বন্ধ ঘোষণা

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, করোনাপরিস্থিতির কারণে ভুটানি ওই রাষ্ট্রদূতকে ভারতের চ্যাংরাবান্ধা ইমিগ্রেশন ব্যবহার করে বাংলাদেশের প্রবেশের অনুমতি দেয়নি ভারতীয় কর্তৃপক্ষ।

এ ব্যাপারে লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, ভুটানি নব নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত ভারত থেকে বুড়িমারী স্থলবন্দর হয়ে আসার কথা জেনেছি। পরে বাতিল করা হয় বলে জানানো হয়। কেন বাতিল হয়েছে এটা জানা নেই।

ইত্তেফাক/এসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: