সুদের টাকা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে সংঘর্ষ, মুক্তিযোদ্ধা নিহত আহত ১৫

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে সুদের কারবারের টাকা ভাগবটোয়ারা নিয়ে সংঘর্ষে সাহেব আলী খন্দকার (৬০) নামে এক মুক্তিযোদ্ধা নিহত ও কমপেক্ষ ১৫ জন আহত হয়েছেন। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে উপজেলার পশারগাতী ইউনিয়নের কাওয়ালদিয়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে৷

নিহত মুক্তিযোদ্ধা সাহেব আলী খন্দকার কওয়ালদিয়া গ্রামের খুররম আলী খন্দকারের ছেলে।

গুরুতর আহত সাহিদুল শেখ, মোফা শেখ, জসিম মোল্যা, লিয়াকত মোল্যা, পান্নু মোল্যা, বরকত মোল্যা, নওশের শেখ, আব্দুল মালেক শেখ, জাফিম মোল্যা ও সুজন শেখকে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন।

পশারগাতী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু রাসেল শিমুল জানান, একই গ্রামের জালাল মোল্লা বিভিন্ন জনের কাছে সুদে টাকা নেন। টাকা পরিশোধ করতে জালালকে পাওনাদাররা চাপ প্রায়োগ করলে সালিশ বৈঠক বসে। পরে জালালের বোন এক লাখ টাকা পাওনাদারকে ভাগ করে দেওয়ার জন্য গ্রামের মাতবরদের হাতে তুলে দেন। ওই টাকা ভাগ করে দেওয়ার দায়িত্ব পড়ে মুক্তিযোদ্ধা সাহেব আলী খন্দকারের ওপর। তিনি তা ভাগ করে দেন। শুক্রবার সকালে পাওনাদার তৈয়ব আলী মুন্সী কম টাকা পেয়েছেন অভিযোগ এনে জালালের কাছে আরও টাকা দাবি করেন। এ নিয়ে ওই গ্রামের দুই পাড়ার লোকজন সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পরে মুক্তিযোদ্ধা সাহেব আলী খন্দকারকে মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

আরও পড়ুন: রাজশাহী বিভাগে আক্রান্ত ২ হাজার ছাড়ালো

মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মোমিন-উল হাবিব বলেন, নিহতের শরীরে আঘাতের চিহ্ন ছিল না। পোস্টমর্টেম রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। অন্যরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মুকসুদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মীর্জা আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণকারী মুক্তিযোদ্ধার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ইত্তেফাক/এসি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: