খুলনায় একদিনে সর্বোচ্চ ১০২জনের করোনা শনাক্ত 

খুলনায় প্রতিদিনই বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনা মেডিক্যাল কলেজের (খুমেক) পিসিআর ল্যাবে ১০২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এটাই একদিনে সর্বোচ্চ করোনা শনাক্ত। এই নিয়ে খুলনায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৮২ জনে। বুধবার রাতে খুমেকের পিসিআর ল্যাব থেকে করোনা পরীক্ষার এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

খুমেকের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ জানান, বুধবার খুমেকের পিসিআর ল্যাবে ২৮৪ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে খুলনা মহানগরীসহ জেলার নমুনা ছিল ২৭০ টি। পরীক্ষায় পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে ১০২ টি। যার মধ্যে ৯৭ জনই মহানগরীসহ খুলনা জেলার। এছাড়া বাগেরহাটের ২ জন, যশোরের ২ জন ও নড়াইলের ১ জন রয়েছেন।

খুলনা সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্র জানায়, খুলনায় একদিনে করোনা শনাক্ত হওয়ার দিক থেকে এটিই সর্বোচ্চ। এর আগে গত মঙ্গলবার সর্বোচ্চ ৪৯ জন শনাক্ত হয়। এনিয়ে খুলনা মহানগরী ও জেলায় এ পর্যন্ত ৫৮২ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

সূত্র জানায়, বুধবার দুপুর পর্যন্ত খুলনায় করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল ৪৯২ জন। যার মধ্যে মারা গেছে ৯ জন। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন ৭৫ জন। আর বাকিরা এখনো চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ বলেন, ‘খুলনায় বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর অবস্থায় রূপ নিচ্ছে। এখন সংক্রমণ রোধে কঠোর লকডাউন ছাড়া আর কোনো বিকল্প পথ নেই। আমি আজ (বৃহস্পতিবার) জেলা প্রশাসকের সঙ্গে দেখা করে এ বিষয়ে আলোচনা করবো। এছাড়া পরবর্তীতে মিটিংয়ের মাধ্যমে খুলনাকে করোনার ছোবল থেকে বাঁচাতে ২১ দিনের কঠোর লকডাউন করার জন্য করোনা প্রতিরোধ কমিটির কাছে সুপারিশ করা হবে। কঠোরভাবে লকডাউন না করা হলে প্রতিদিনই করোনা শনাক্তের রেকর্ড হবে।’

ইত্তেফাক/এমআর

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: