বগুড়ায় যমুনা নদীতে নিখোঁজ ২ শিশুর সন্ধান মেলেনি

বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় যমুনা নদীতে নেমে দুই শিশু নিখোঁজ হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পরও তাদের উদ্ধার করা যায়নি। নিখোঁজ দুই শিশু হলেন হৃদয় হাসান (৬) ও সেলিম মিয়া (৯)। শিশু দুটি সম্পর্কে মামা-ভাগনে।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে সারিয়াকান্দি উপজেলার চালুয়াবাড়ী ইউনিয়নের দুর্গমচর মানিকদাইড় খেয়াঘাটে এই দুই শিশু নিখোঁজের ঘটনা ঘটে। দিনভর নিখোঁজ দুই শিশুর খোঁজ না পেয়ে রাজশাহী থেকে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দলকে ডাকা হয়। শনিবার রাত ৮টায় ডুবুরি দল মানিকদাইড় ঘাটে পৌঁছে নিখোঁজ শিশুর সন্ধান শুরু করেন। নিখোঁজ দুই শিশুর মধ্যে হৃদয় হাসান মানিকদাইড় চরের বাসিন্দা মোহাম্মদ আলীর ছেলে ও সেলিম মোহাম্মদ আলীর নাতি। সেলিমের বাবার নাম রনজু মিয়া। তাদের বাড়ি বগুড়ার শেরপুর উপজেলায়।

রাত ৮টায় চালুয়াবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান শওকত আলীর উপস্থিতিতে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল যমুনা নদীর মানিকদাইড় ঘাট এলাকায় নিখোঁজ শিশু দুটির সন্ধান শুরু করে। শওকত আলী বলেন, যমুনা নদীতে কয়েক দিন ধরেই প্রবল স্রোত। পানিও বেড়েছে। এতে উদ্ধার অভিযান ব্যহত হচ্ছে। রাত ১০টা পর্যন্ত অভিযানে তাদের উদ্ধার করা যায়নি।

চেয়ারম্যান শওকত আলী বলেন, শেরপুর উপজেলা থেকে মানিকদাইড় চরে মায়ের সঙ্গে নানা মোহাম্মদ আলীর বাড়ি বেড়াতে আসে শিশু সেলিম। বেলা ১১টার দিকে মোহাম্মদ আলীর ছয় বছরের ছেলে হৃদয়কে (মামা) সঙ্গে নিয়ে মানিকদাইড় খেয়াঘাটে যমুনা নদীতে খেলতে নামে সেলিম। এ সময় স্রোতের তোড়ে নিখোঁজ হয় দুজনই। দিনভর নদীতে তল্লাশি করেও তাদের কোনো সন্ধান মেলেনি। রাজশাহী থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল রাত ৮টায় নদীতে নেমে তল্লাশি শুরু করলেও এখন পর্যন্ত দুই শিশুর সন্ধান মেলেনি।

ইত্তেফাক/এমআরএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: