তিস্তার পানি বিপদসীমার ৩৮ সেন্টিমিটার ওপরে 

ঢল ও ভারি বর্ষণের কারণে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ৩৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার নিম্নাঞ্চলগুলোর কয়েক হাজার মানুষজন পানিবন্দি হয়ে পড়েছে।

জানাগেছে, শুক্রবার রাত ১২টায় তিস্তার পানি ক্রমেই বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ৩৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজ ডালিয়া পয়েন্টে পানি প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫২ দশমিক ৯৫ সেন্টিমিটর। যা (স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ৬০সেঃমি) উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় হাতীবান্ধা উপজেলার সানিয়াজান, গড্ডিমারী, সিন্দুর্না, পাটিকাপাড়া, সিংগিমারী ও ডাউয়াবাড়ী ইউনিয়নসহ নতুন নতুন এলাকার অনেক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়ে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামিউল আমিন বলেন, সরেজমিনে গিয়ে এলাকাগুলো পরির্দশন ও সর্তক করে আসলাম। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যানকে পানিবন্দি পরিবারগুলোর তালিকা করতে বলা হয়েছে। যতদ্রুত সম্ভব আমরা তাদের মধ্যে ত্রাণ পৌঁছে দিব।

এ বিষয়ে দেশের বৃহত্তম সেচ প্রকল্প তিস্তা ব্যারাজের ডালিয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, পানি কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ১০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ব্যারাজের সবগুলো জলকপাট খুলে দেয়া হয়েছে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: