হাতীবান্ধায় রেড অ্যালার্ট জারি, নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ৫৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আর তাই তিস্তা ব্যারেজ এলাকায় রেড অ্যালার্ট জারি করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)। এছাড়া তিস্তা তীরবর্তী মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং করা হচ্ছে। এতে করে তিস্তা পাড়ের লোকজনের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। ব্যারেজ রক্ষার্থে যেকোনো মুহূর্তে ফ্লাট বাইপাস কেটে দেওয়া হতে পারে বলে গুঞ্জন উঠেছে।

রবিবার রাত ৯টায় তিস্তা ব্যারেজের ডালিয়া পয়েন্টে পানি প্রবাহ রেকর্ড করা হয় ৫৩ দশমিক ১৫ মিটার। যা (স্বাভাবিক ৫২ দশমিক ৬০ মি.) বিপদসীমার ৫৫ সেন্টিমিটার ওপরে।

গত তিন দিন ধরে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে হাতীবান্ধা উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের প্রায় কয়েক হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। রবিবার বিকেল থেকে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় উপজেলার হাটখোলা-বড়খাতা পাকা সড়কের উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সামিউল আমিন বলেন,আমি নিজে এখনো সরেজমিনে থেকে আপ্রাণ চেষ্টা করতেছি পানিবন্দি পরিবারগুলোর খোঁজ-খবর নেয়ার এবং নিরাপদ স্থানে পৌঁছানোর জন্য।

তিস্তা ব্যারেজের ডালিয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার ৫০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আর তাই রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং করা হচ্ছে।

ইত্তেফাক/জেডএইচডি

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: