সাহেদ ও মাঝিসহ তিনজনের বিরুদ্ধে দেবহাটা থানায় র‌্যাবের মামলা

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমকে অবৈধ অস্ত্রসহ গ্রেপ্তারের পর তাকেসহ তিনজনকে আসামি করে দেবহাটা থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করেছে র‌্যাব।

দেবহাটা থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা জানান, বুধবার ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার সীমান্তবর্তী শাঁখরা কোমরপুর থেকে প্রতারক সাহেদকে গ্রেপ্তারের পর রাতেই র‌্যাব-৬ এ সিপিসি-১ এর ডিএডি নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ১৯৭৮ সালের আর্মস এ্যাক্টের ১৯ এ তৎসহ ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ এর বি/এ ধারায় দেবহাটা থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলা নং – ০৫। মামলায় প্রতারক সাহেদ করিমকে প্রধান আসামিসহ নৌকার মাঝি বাচ্চুকে পলাতক আসামি ও আরো একজনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলাটি দায়ের করা হয়।

ওসি বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, র‌্যাব এর পক্ষ থেকে অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় প্রতারক সাহেদকে মূল আসামি এবং একজনকে পলাতক ও আরও একজনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রতারণাসহ নানা অপকর্মের ঘটনায় ইতোপূর্বে প্রতারক সাহেদের বিরুদ্ধে ৫৯টি মামলার সন্ধান পায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। যার মধ্যে একাধিক মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত পলাতক আসামি ছিলেন রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক ও রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ।

ইত্তেফাক/এএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: