কেশবপুরে করোনায় গৃহবধূর মৃত্যু

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যশোরের কেশবপুর উপজেলায় জাহিদা বেগম (৫০) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দুপুরে মৃত্যু হয় তার। সে উপজেলার মজিদপুর গ্রামের আব্দুল বারিকের স্ত্রী।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আলমগীর জানান, গত ১২ জুলাই ওই নারী করোনা উপসর্গ নিয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। ১৩ জুলাই চিকিৎসারত অবস্থায় তার নমুনা সংগ্রহ করে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের জিনোম সেন্টারে পাঠানো হয়। ১৪ জুলাই তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ছাড়পত্র দেওয়া হলে তিনি কোথাও চিকিৎসার জন্য ভর্তি না হয়ে পার্শ্ববর্তী কলারোয়া উপজেলার কেড়াগাছি ইউনিয়নের দমদম বাজারে বাবার বাড়িতে যান। ১৫ জুলাই তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পৌঁছায়। এরপর আজ দুপুরে বাবার বাড়িতে তার মৃত্যু হয়।

আরও পড়ুন: বাগেরহাটে করোনায় আইনজীবীর মৃত্যু

এ খবর জানতে পেরে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আলমগীর কলারোয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বিষয়টি অবহিত করেন। সেখানে দাফনের ব্যবস্থা করতে না পেরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা জাহিদা বেগমের মরদেহ বাবার বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়ি কেশবপুর উপজেলার মজিদপুর গ্রামে দাফনের প্রস্তুতি চলেছে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৬ জুলাই কেশবপুরের কালিয়ারই গ্রামের এসবিএল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপাপ্ত প্রধান শিক্ষক নূরুল ইসলাম করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এ পর্যন্ত কেশবপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৩ জন ও সুস্থ হয়েছেন ৪৩ জন।

ইত্তেফাক/এএএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: