করোনা উপসর্গে চুয়াডাঙ্গা দোকান মালিক সমিতির সভাপতির মৃত্যু

বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি আসাদুল হোসেন জোয়ার্দ্দার লেমন(৬৮) করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

ঢাকায় নেওয়ার পথে বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটের নিকটে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে নেয়া হয় নিকটস্থ হাসপাতালে। সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আসাদুল হোসেন জোয়ার্দ্দার লেমন চুয়াডাঙ্গা রেলপাড়ার মৃত এমদাদ হোসেন জোয়ার্দ্দার ও সায়মা খাতুন জোয়ার্দ্দারের ছেলে। তার মৃত্যুর খবরে জেলার সকল ব্যবসায়ী ও রাজনৈতিক মহল এবং বিভন্ন শ্রেণীর পেশার মানুষ শোক প্রকাশ করেছে।

পারিবারিক ও চিকিৎসক সূত্রে জানা গেছে, বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতির চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার সভাপতি আসাদুল হোসেন জোয়ার্দ্দার লেমন গত কয়েকদিন ধরে সর্দি, জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই শ্বাসকষ্টের মাত্রা অসহনীয় পর্যায়ে পৌছায়।এক পর্যায়ে তাকে নেয়া হয় চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. শামীম কবির জানান, আসাদুল হোসেন জোয়ার্দ্দার লেমন সর্দি,জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সদর হাসপাতালে ভর্তি হোন।করোনা উপসর্গ থাকায় তাকে আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা দেয়া হয় ও নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা আজ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। ভর্তির পর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়।পরিবারের সদস্যরা রাত সাড়ে ৮টার দিকে অ্যাম্বুলেন্স যোগে দ্রুত ঢাকায় নেওয়ার পথে রাজবাড়ী মোড়ে পৌঁছালে তার অবস্থার আরও অবনতি হওয়ায় তাৎক্ষণিক গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আসাদুল হোসেন জোয়ার্দ্দার লেমনের মৃত্যুও খবর ছড়িয়ে পড়লে ব্যবসায়ী মহলে শোকের ছায়া নেমে আসে। অনেকেই শোক প্রকাশ করে বলেন চুয়াডাঙ্গার ব্যবসায়ী মহল একজন যোগ্য নেতাকে হারালো । তিনি স্ত্রী, ১ ছেলে ১ মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

এদিকে চুয়াডাঙ্গায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৪জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩৫০ জনে। নতুন ৭জনসহ এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ২১২ জন এবং এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৪ জন। বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে নয়টায় সিভিল সার্জন কার্যালয় এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ইত্তেফাক/এমআরএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: