হাটে গরু-ছাগল মিললেও ক্রেতা তেমন নেই 

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার একমাত্র পশুর বাজার বসে পদুয়া তেওয়ারী হাটে। করোনার এই সময়ে হাট জমে উঠেনি। গরু মিললেও ক্রেতা কম। দক্ষিণ চট্টগ্রামের সেরা এই হাটটি সপ্তাহে রবিবার ও বৃহস্পতিবার বসে। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পাশে এই হাটটির অবস্থান। ফলে দুচিন্তায় রয়েছেন ইজারাদার।

রবিবার পশুর বাজারে গিয়ে দেখা গেছে, হাটে গরু এসেছে প্রচুর। কিন্তু ক্রেতার সংখ্যা কম। আগে যে পশুর হাটে দৈনিক ৯০-৯৪ হাজার টাকা হাসিল উঠত সেখানে বর্তমানে করোনার সময়ে ৭-১০ হাজার টাকার বেশি হাসিল উঠছে না বলে জানান ইজারাদার।

ইজারাদার মো: রাশেদুল ইসলাম চৌধুরী জানান, পদুয়া তেওয়ারী হাট ভ্যাটসহ ১ কোটি ২ লাখ ৬৫ হাজার টাকায় ইজারা নেয়া হয়। করোনার শুরু থেকে হাট-বাজার বসা বন্ধ ছিল। লকডাউন তুলে দিলে হাট-বাজার বসলেও পশুর হাটে ক্রেতা-বিক্রেতার সংখ্যা কমে গেছে। হাটে গরু-ছাগল মিললেও ক্রেতা তেমন নেই। ফলে তাকে লোকসান গুণতে হবে।

ইত্তেফাক/আরকেজি

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: