“বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তোলার দায়িত্ব আপনার আমার সবার”

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তজা বলেছেন, জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তোলার দায়িত্ব আপনার আমার সবার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে সোনার বাংলায় গড়ে তুলতে নিরলস কাজ করে চলেছেন। আসুন আমরা দু’হাত বাড়িয়ে তার উন্নয়নের জোয়ারকে এগিয়ে নিয়ে যাই।

বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বেশিরভাগ শিক্ষিত মানুষই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। আপনারা যারা সমাজের তৃণমূল পর্যায়ে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছেন, দেশ প্রেমিক আপনারাই। আপনাদেরকে স্যালুট জানাই।

রবিবার (২আগস্ট) বেলা ১১টায় শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে “ভিন্নমত ভিন্নপথ, সবাই মিলে একহাত” এ শ্লোগানকে সামনে রেখে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তজা জনতার মুখোমুখি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়ে এসব কথা বলেন। এ অনুষ্ঠানের উদ্যোক্তা ছিলেন তিনি নিজেই। সমাজ উন্নয়ন থেকে দুর্নীতি সব ধরণের প্রশ্ন উঠে আসে বিভিন্ন প্রশ্নকর্তার কাছ থেকে। একে একে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন মাশরাফি বিন মোর্তজা।

আরো পড়ুনঃ স্ত্রীর সামনে ভরা নদীতে ঝাঁপ দিলেন স্বামী

নড়াইল পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর বিশ্বাস, লোহাগড়া পৌর মেয়র আশরাফুল আলম, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট উত্তম ঘোষ, জেলা আওয়ামী লীগের বিগত কমিটির বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক হাফিজ খান মিলন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চঞ্চল শাহরিয়ার মিম, নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম অনিকসহ অর্ধ শতাধিক ব্যক্তি এমপির কাছে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন এবং এমপি তাদের কথার উত্তর প্রদান করেন। জেলার ৪০টি শ্রেণি-পেশার মানুষ ছিলেন অনুষ্ঠানের প্রশ্নকর্তা। প্রায় তিন ঘন্টা ধরে চলে অনুষ্ঠানের কার্যক্রম। অনুষ্ঠানটি সহযোগিতা করে নড়াইল জেলা ছাত্রলীগ।

এছাড়া, মাশরাফি বিন মোর্তজা করোনাকালীন পরিস্থিতিতে নড়াইল জেলার সাংবাদিকদের মধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ করেন। রবিবার সকালে নড়াইল প্রেসক্লাবের আয়োজনে প্রেসক্লাবের হলরুমে নড়াইল প্রেসক্লাবের সভাপতি এনামুল কবীর টুকুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত চেক বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে চেক বিতরণ করেন নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মোর্তুজা। জেলায় কর্মরত ২৭জন গণমাধ্যম কর্মীদের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ২লক্ষ ৭০ হাজার টাকার চেক হস্তান্তর করেন মাশরাফি।

ইত্তেফাক/এমএএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: