চলতি বন্যায় নওগাঁয় ভেসে গেছে ২৫ কোটি টাকার মাছ

নওগাঁয় চলতি বছরের বন্যায় পাঁচ উপজেলায় ৩১৮ জন চাষীর ৫৬৩টি পুকুর এবং দিঘী ভেসে গেছে। এতে বিপুল পরিমাণ ক্ষতির মুখে পড়েছেন জলাশয়গুলোর মালিকরা।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা ফিরোজ আহাম্মেদ জানান, জেলায় ৩১৮ ব্যক্তির মালিকানাধীন ৩৭১ দশমিক ৩৭ হেক্টর জলাশয়ের আয়তন বিশিষ্ট এসব পুকুরের ২৪ কোটি ৫৪ লাখ ২০ হাজার টাকা মূল্যের এক হাজার ৬৫৮ মেট্রিক টন মাছ, ৫০ লাখ চার হাজার টাকা মূল্যের ৩৩ লাখ দুই হাজার পোনা ভেসে গেছে। এছাড়াও এক লাখ টাকা মূল্যের অবকাঠামোগত ক্ষতি হয়েছে।

সূত্রমতে সদর উপজেলায় ৭৯ জন মালিকের ১৩৪টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। ৪৭ দশমিক ৮১ হেক্টর জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর দিঘী থেকে দুই কোটি ৪৩ লাখ টাকা মূল্যের ১৭৫ দশমিক ৫১ মেট্রিক টন মাছ বন্যার পানিতে ভেসে গেছে।

মান্দা উপজেলায় ৫০ জন মালিকের মোট ৭০টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। ১৪ হেক্টর জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর দিঘী থেকে ৫১ লাখ ২৪ হাজার টাকা মূল্যের ৪২ দশমিক ৭০ মেট্রিক টন মাছ ভেসে গেছে।

আরও পড়ুন: গঙ্গাচড়ায় শিক্ষার্থীদের অজান্তেই একাদশে মাদ্রাসায় ভর্তি

আত্রাই উপজেলায় ১৪৬ ব্যক্তির মালিকানাধীন মোট ৩০৭টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। এর ফলে ২৮৫ হেক্টর জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর দিঘী থেকে ২১ কোটি ১৫ লাখ টাকা মুল্যের এক হাজার ৪১০ মেট্রিকটন মাছ এবং ৫০ লাখ টাকা মূল্যের ৩৩ লাখ পোনা ভেসে গেছে।

রানীনগর উপজেলায় চলতি বছরের বন্যায় ২৯ ব্যক্তির মালিকানাধীন মোট ৩২টি পুকুর দিঘী বন্যার পানিতে ভেসে গেছে। মোট ৬ দশমিক ৯৬ হেক্টর আয়তনের জলা বিশিষ্ট এসব পুকুর থেকে ১৫ লাখ ৭৪ হাজার টাকা মূল্যের ১৩ দশমিক ১২ মেট্রিক টন মাছ ভেসে গেছে।

পোরশা উপজেলায় ১৪ ব্যক্তির মালিকানাধীন ২০টি পুকুর দিঘী ভেসে গেছে। এর ফলে ১৭ দশমিক ৬০ হেক্টর আয়তনের জলা বিশিষ্ট পুকুর দিঘী থেকে ২৯ লাখ দুই হাজার টাকা মূল্যের ১৭ দশমিক ২০ মেট্রিক টন মাছ, চার হাজার টাকা মুল্যের দুই হাজার পোনা ভেসে গেছে এবং এক লাখ টাকার অবকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ইত্তেফাক/এসি

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: