জলাবদ্ধতা থেকে রক্ষায় কীর্তনখোলার সংযোগ খাল পুনখননের নির্দেশ

১৯৭০ সালে সাইক্লোন গোর্কির ৫০ বছর পর এবার আবার পানিতে তলিয়েছে বরিশাল নগরীর সদর রোড। উত্তরের বন্যার পানির ঢল, অমাবস্যার জোয়ারের প্রভাব এবং অতিবৃষ্টির কারণে শুধু সদর রোড নয়, নগরীর অধিকাংশ এলাকায় সড়ক, বাড়িঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তলিয়েছে। নদীতে ভাটার সময় পানি দ্রুত নামতে না পাড়ায় সৃষ্টি হচ্ছে দীর্ঘস্থায়ী জলাবদ্ধতার। এ অবস্থায় বরিশাল নগরীর বাসিন্দাদের জলাবদ্ধতার হাত থেকে রক্ষায় কীর্তনখোলা নদীর সংযোগ ৫টি খাল পুনখনন করার নির্দেশ দিয়েছেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ও বরিশাল সদর আসনের এমপি কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক শামীম।

পানি পরিস্থিতি দেখতে শনিবার বিকেলে নগরীর ত্রিশগোডাউন খাল পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী।

তিনি আরও বলেন, কীর্তনখোলার সাথে সংযোগ ৫টি খাল পুনখনন এবং একই সাথে নদীর তীরে ফ্লাট ওয়াল নির্মাণে প্রকল্প দিতে প্রধান প্রকৌশলীকে নির্দেশ দিয়েছি। যাতে বন্যা বা জোয়ারের পানি শহরে প্রবেশ করতে না পারে। স্লুইচ গেট দিয়ে নদীর পানি শহরে প্রবেশ করতে পারবে না, তবে যাতে শহরের ড্রেনেজ পানি নেমে যেতে পারে সেই ব্যবস্থা থাকবে। এই প্রকল্প সম্পন্ন হলে আগামী ২/৩ বছরের মধ্যে একটি সুন্দর বরিশাল নগরী উপহার দেয়া সম্ভব হবে বলে তিনি আশা করেন।

আরো পড়ুন : লঘুচাপের বৃষ্টি আরো তিন চার দিন থাকবে

এ সময় জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান, পানি উন্নয়ন বোর্ড দক্ষিণাঞ্চল জোনের প্রধান প্রকৌশলী মো. হারুন-অর রশিদ এবং মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুদুল হক খান মামুনসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বিকেলে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নগরীর ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের রুইয়ারপোল এলাকায় পানিবন্দি মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন।

ইত্তেফাক/ইউবি

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: