জাহাজে চড়ে ভাসানচরের আরও ১৪৬৪ জন রোহিঙ্গা

চট্টগ্রাম, ৩০ জানুয়ারি – তৃতীয় ধাপের দ্বিতীয় দিয়ে নোয়াখালীর ভাসাচরের উদ্দেশে ১ হাজার ৪৬৪ জন রোহিঙ্গা রওনা হয়েছেন।

শনিবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চট্টগ্রামের পতেঙ্গা বোট ক্লাব সংলগ্ন জেটি থেকে নৌবাহিনীর ৪টি জেটি জাহাজযোগে এই রোহিঙ্গারা ভাসানচরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। এর আগে গতকাল শুক্রবার তৃতীয় দফার প্রথম দিনে ভাসানচরে পৌঁছেন ১৭৭৮ জন।

শনিবার (৩০ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় চট্টগ্রামের নৌবাহিনীর জনসংযোগ বিভাগ থেকে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

নৌবাহিনীর জনসংযোগ বিভাগ থেকে জানানো হয়, শনিবার নৌবাহিনীর ৪টি জাহাজে ১৪৬৪ রোহিঙ্গা নিয়ে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে রওনা করেছেন। দুপুর ১২টার মধ্যে তারা ভাসানচর পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ২ দিনেও কোন হদিস মেলেনি যুবলীগ নেতা জুয়েলের

এর আগে শুক্রবার বিকেলে উখিয়া থেকে এই রোহিঙ্গাদের বাসযোগে পতেঙ্গার শাহিন স্কুল অ‌্যান্ড কলেজ মাঠে স্থাপিত নৌবাহিনীর অস্থায়ী ট্রানজিট ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। তাদের রাতের খাবার এবং প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয় এই ক্যাম্পে। এরপর সকালে ভাসানচরের উদ্দেশ্যে তাদের জাহাজে তোলা হয়।

নৌবাহিনীর কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, স্বেচ্ছায় ভাসানচর যেতে আগ্রহী এমন রোহিঙ্গা সদস্যদের তালিকা করে তাদের ভাসানচরে পৌঁছানোর উদ্যোগ গ্রহণ করে কক্সবাজারের অতিরিক্ত শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কর্তৃপক্ষ। সেই উদ্যোগের অংশ হিসেবে আজ তৃতীয় দফার দ্বিতীয় দিনে আরও ১৪৬৪ জন রোহিঙ্গা সদস্যকে নৌবাহিনীর জাহাজযোগে ভাসানচরে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর প্রথম ধাপে ১ হাজার ৬৪২ জন এবং দ্বিতীয় ধাপে ২৯ ডিসেম্বর ১ হাজার ৮০৪ জন রোহিঙ্গা সদস্য স্বেচ্ছায় ভাসানচরে গেছে। শুক্রবার তৃতীয় দফার প্রথম দিনে গেছে ১৭৭৮ জন।

বর্তমানে ভাসানচরে অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের মাধ্যমে উন্নত সুযোগ-সুবিধার কথা জেনে এই রোহিঙ্গা সদস্যরা ভাসানচরে যেতে আগ্রহ প্রকাশ করে। ফলে তাদের তালিকা করে ভাসানচরে নেওয়া হচ্ছে। ভাসানচরের রোহিঙ্গাদের জন্য উন্নত বসবাস, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, ক্রীড়া, বিনোদন, হাঁস-মুরগি পালনসহ নানা সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ সরকার।

সূত্র : রাইজিংবিডি
এন এইচ, ৩০ জানুয়ারি

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: