রঙিন বিতর্কে সত্যজিৎ রায়ের ‘পথের পাঁচালী’

মার্কিন প্রবাসী বাঙালি অনিকেত বেরার একটি নীরিক্ষামূলক কাজ নিয়ে। মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অনিকেত লকডাউনের সময়ে সত্যজিৎ রায়ের ‘পথের পাঁচালী’র একটি রঙিন ক্লিপ ইউটিউবে আপলোড করেন। আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স ব্যবহার করে বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম ক্লাসিক একটি দৃশ্য সাদা-কালো থেকে রঙিন করেছিলেন। এরপর থেকেই অনেক সত্যজিত্ভক্ত এই নিরীক্ষার পক্ষে-বিপক্ষে মত দেন।

অনেকেই বলেছেন, সামান্য একটি অংশ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দোষের কিছু নেই। তবে বেশির ভাগই সত্যজিতের কাজ নিয়ে এমন পরীক্ষা-নিরীক্ষা মানতে পারছেন না।

সত্যজিৎ-পুত্র পরিচালক সন্দীপ রায় বলছেন, ‘এর আগেও বিদেশে বহুবার এ ধরনের এক্সপেরিমেন্ট হয়েছে। তার ফল যে সব সময়ই ভালো হয়েছে, এমন নয়। তবে আমার মতে ক্লাসিকগুলোকে নিয়ে নাড়াচাড়া না করাই ভালো।’

এই সময়ের বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম সিনেমাটোগ্রাফার সৌমিক হালদার বলেন, ‘সুব্রত মিত্র আমাদের কাছে ঈশ্বরের মতো। তাঁর কাজ নিয়ে আর এক্সপেরিমেন্ট না করাই ভালো।’

এতসব সমালোচনা মাথা পেতে নিয়ে অনিকেত বলছেন, ‘আমার নিজেরও রঙিন পথের পাঁচালী ভালো লাগে না। প্রযুক্তিগত নিরীক্ষার জন্য শুধু কাজটি করা। রঙিন নয়, ছবিটির ডিজিটাল মান উন্নয়নও হয়তো অনেককে আকৃষ্ট করবে। সব সমালোচনা মাথা পেতে নিচ্ছি। আমার ইচ্ছা ছিল শুধুই সত্যজিেক শ্রদ্ধার্ঘ্য জানানো।’ সূত্র : আনন্দবাজার।

ইত্তেফঅক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: