কাজে ফিরতে আতঙ্কে শিল্পীরা

শুরু হয়ে গেছে নাটকের শুটিং। দীর্ঘদিন ঘরবন্দি অবস্থা থেকে অনেকেই ফিরেছেন কাজে। টেলিভিশন নাটকের সংগঠনগুলো সরকারের লকডাউন তুলে নেওয়ার পর থেকে শুটিংয়ের অনুমতি প্রদান করেছে। এ নিয়ে অনেকে খুশি আবার অনেক হতাশাও প্রকাশ করেছেন। জানানো হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তবেই শুটিং করা যাবে। সেই ভরসায় অনেক অভিনয়শিল্পী শুটিং শুরু করলেও অনেকে আবার হতাশার কথা বলেছেন। কারণ একটি শুটিং ইউনিট মানে অনেক মানুষের একসঙ্গে কাজ। চাইলেও দূরত্ব বজায় রেখে এখানে কাজ করা খুব বেশি সম্ভব নয়।

অনেক অভিনয়শিল্পী জানিয়েছেন, মেকআপ এখন নিজেরাই নিচ্ছেন তারা। আর টেক শেষে আলাদা হয়ে বসছেন। কিন্তু অভিযোগ নিরাপদ দূরত্ব রেখে শুটিং করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই আতঙ্কিত তারা। অনেকেই কাজ শুরু করে আবারও গুটিয়ে নিয়েছেন নিজেকে। আবার অনেকে এখন পর্যন্ত কাজে ফেরার সিদ্ধান্ত নেননি। করোনা পরিস্থিতির যেভাবে অবনতি হচ্ছে এমন অবস্থায় শুটিং করায় নিরাপত্তা পাচ্ছেন না অনেক অভিনয়শিল্পী।

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী বলেন, ‘এমন অবস্থায় শুটিং হাউজে নিরাপদ থাকবো তা মনে হয় না। কারণ শুটিং মানেই অনেক মানুষ। সেখানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজ করাটা কঠিন। যারা কাজ করছেন সেটা তাদের বিষয়। কিন্তু আমার জীবনের দিকটা তো আমারই দেখতে হবে। তাই সবকিছু স্বাভাবিক হলে তবেই কাজে ফেরার সিদ্ধান্ত নেবো।’

মেহজাবীন বলেন, ‘এখনও কোনো শুটিংয়ে অংশ নিইনি। পরিস্থিতি আরও ভালো হওয়ার অপেক্ষায় আছি। এখন সবার নিরাপদে থাকা জরুরি। নিজের এবং পরিবারকে সুরক্ষিত রাখার জন্যই ঘরে থাকছি।’

আফরান নিশো বলেন, ‘করোনার পরিস্থিতি আমাদের দেশে এখন যেমন, এই অবস্থায় শুটিংয়ে ফেরা নিরাপদ মনে করছি না। কারণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে কতটুকু কাজ করা হচ্ছে সেটি এখনও জানি না। তবে আগামী ১ মাস অন্তত কাজে ফেরার পরিকল্পনা করছি না। এরপর পরিস্থিতে বুঝে সিদ্ধান্ত নেবো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: