সুশান্তর মৃত্যুর একদিন পর বেরিয়ে এলো চাঞ্চল্যকর তথ্য!

সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা করেননি, ওকে পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে। অভিনেতার মৃত্যুর ঘটনায় এবার গর্জে উঠলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। সুশান্তের মৃত্যুতে নিজের ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেন ‘বলিউডের কুইন’। কঙ্গনা বলেন, ‘সুশান্তের মৃত্যু আমার মনকে নাড়িয়ে দিয়েছে।

এখানে কিছু ব্যক্তি যুক্তি দেখানোর চেষ্টা করছেন, সুশান্ত মানসিকভাবে দুর্বল ছিল, ও অবসাদে ভুগছিল। যে ছেলে স্ট্যানফোর্ডের স্কলারশিপ পায়, ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ট্রান্স পরীক্ষায় র‌্যাঙ্ক করে, সেই ছেলে কি সত্যিই এত দুর্বল হতে পারে?’

কঙ্গনা আরও বলেন, ‘সুশান্তের সোশ্যাল মিডিয়া পোস্ট যদি দেখেন, তাহলে বুঝবেন উনি সকলকে বারবার অনুরোধ করছিলেন, আমার ছবি দেখুন, ইন্ডাস্ট্রিতে আমার গডফাদার কেউ নেই। ছবি না চললে আমায় ইন্ডাস্ট্রি থেকে বের করে দেওয়া হবে। নিজের সাক্ষাৎকারেও বারবার এ কথা বলেছেন সুশান্ত। তাহলে কী বলবেন, এই ঘটনার পেছনে কিছু সত্যিই কিছু নেই? যে কাই পো চে-র মতো ছবি করে, ছিছোড়ের মতো ছবি করে, তাকে কেন কোনো অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয় না?’

এদিন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির একাংশকে লক্ষ্য করে কঙ্গনা বলেন, তার প্রতিও অবিচার হয়েছে। তিনি বলেন, ‘ঠিক আছে আপনাদের কোনো ছবি দিতে হবে না, তবে আমরা যে ছবি করছি, তার সম্মান কেন পাব না? আমার ছবিকে বহুবার ফ্লপ বলে ঘোষণা করা হয়েছ? কেন আমার বিরুদ্ধে ৬টা মামলা করা হল? আমায় জেলে পাঠানোর পরিকল্পনা কেন করা হল? কিছু জায়গায় লেখা হচ্ছে, সুশান্ত মাদকাসক্ত ছিলেন। অথচ সঞ্জয় দত্ত নেশাগ্রস্ত হলে সেটা তো আপনাদের বেশ ভালো লাগে! আমাকে কিছু লোকজন ম্যাসেজ পাঠান, সত্যিই তো তোমার খুব খারাপ সময় যাচ্ছে, ভুল পদক্ষেপ নিও না। কেন এসব বলেন? আমার মাথায় কেন আত্মহত্যার চিন্তা ঢোকানোর চেষ্টা চলছে?’

কঙ্গনার কথায়, ‘এটা আত্মহত্যা নয়, পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে। সুশান্তের এটাই ভুল ছিল যে, ও তাদের কথায় প্রভাবিত হয়েছে।

যারা বলেছে তোমার দ্বারা কিছু হবে না। ওরা এটাই চায়, ওরা একাই রাজত্ব করবে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে। আর সুশান্ত অবসাদগ্রস্ত, নেশাগ্রস্ত ছিল, এটাই লেখা হবে। তাই আমাদের এটা ঠিক করতে হবে ইতিহাসকে কারা লিখবে?’

ইত্তেফাক/বিএএফ

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: