নারী-পুরুষকে একসঙ্গে চাকরি করতে দেবে না তালেবান

আফগানিস্তানে নারী ও পুরুষকে একসঙ্গে কাজ করতে দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন তালেবানের শীর্ষস্থানীয় নেতা ওয়াহিদুল্লাহ হাশেমি। আগস্টের মাঝামাঝি আফগানিস্তানের ওপর নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার পর অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের ৭ দিন পর এমন তথ্য জানালো তালেবান। বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স এক বিশেষ প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের অন্তর্বর্তী সরকারের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে এ ধরনের বক্তব্য দেওয়া না হলেও তালেবান নেতৃত্বের ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিত্ব হিসেবে পরিচিত ওয়াহিদুল্লাহ হাশেমি একথা ঘোষণা করেছেন।

Afghan women should not work alongside men, says senior Taliban figure -  News | Khaleej Times

রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওয়াহিদুল্লাহ হাশেমি বলেন, আফগান নারীদের স্বাধীনভাবে যেকোনো কর্মস্থলে যাওয়ার অনুমতি দেওয়ার ব্যাপারে আন্তর্জাতিক চাপ রয়েছে। তবে চাপ থাকলেও পরিপূর্ণভাবে ইসলামি শরিয়ত ও আইন অনুযায়ী তাদের চলতে হবে। শিগগিরই ব্যাংক ও গণমাধ্যমের মতো প্রতিষ্ঠানে নারীদের চাকরি নিষিদ্ধ করে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

হাশেমি আরও বলেন, আমরা আফগানিস্তানে ইসলামি শরিয়ত প্রতিষ্ঠার জন্য ৪০ বছর ধরে সংগ্রাম করেছি। আর ইসলামি শরিয়ত কোনো অবস্থায় এক ছাদের নিচে অপরিচিত নারী-পুরুষকে একসঙ্গে কাজ করার অনুমতি দেয় না।

নারীদের চিকিৎসাবিদ্যা ও শিক্ষকতায় অবদানের ক্ষেত্রে এক প্রশ্নের জবাবে হাশেমি বলেন, নারীদের চিকিৎসাবিদ্যা অর্জনসহ শিক্ষকতার চাকরি করতে দেওয়া হবে। কারণ, এসব সেক্টরে নারীদের প্রয়োজন রয়েছে। তবে হাসপাতাল, স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে নারীদের জন্য সম্পূর্ণ পৃথক ব্যবস্থা রাখা হবে।

ইত্তেফাক/এএইচপি

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: