বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স: নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল ইন্দোনেশিয়া

 

বোর্নিও, ২৯ ডিসেম্বর – ইন্দোনেশিয়া তিন বছরেরও বেশি সময় পর বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্সের ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিলো। ২০১৮ সালে লায়ন এয়ারের অন্তর্ভুক্ত এ মডেলের একটি প্লেন বিধ্বস্ত হওয়ার পর নিষেধাজ্ঞা দেয় দেশটি। ওই দুর্ঘটনা ১৮৯ জন যাত্রী নিহত হন। বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) বিবিসির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ইন্দোনেশিয়ার পরিবহন মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত অবিলম্বে কার্যকর হবে। এয়ারলাইনসগুলোকে অবশ্যই চলাচলের যোগ্যতা সম্পর্কিত নির্দেশাবলী অনুসরণ করতে হবে। তাছাড়া বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স প্লেন উড্ডয়নের আগে পরিদর্শন করতে হবে। সরকারি কর্মকর্তারাও পরিদর্শন করতে পারেন বলেও জানানো হয় বিবৃতিতে।

বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বেশি বিক্রিত কোম্পানিটি বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় ২০১৯ সালে। সে সময় ইথিওপিয়ান এয়ারলাইনসের অন্তর্ভুক্ত এ মডেলের একটি প্লেন বিধ্বস্ত হয়। তখন অধিকাংশ দেশই এ সিরিজের প্লেন উড্ডায়ন বন্ধ রেখেছিল।

সোমবার ইথিওপিয়ান এয়ারলাইনস জানায়, ফেব্রুয়ারি থেকে তারা এ সিরিজের ফ্লাইট চালু করবে। যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে এ মডেলের প্লেন পরিষেবাতে ফিরে আসার কয়েক মাস পরে ইথিওপিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার পক্ষ থেকে এমন ঘোষণা এলো।

বর্তমানে ১৮০টির বেশি দেশ বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স চালুর অনুমোদন দিয়েছে। অস্ট্রেলিয়া, জাপান, ভারত, মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর চলতি বছরের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়।

ইন্দোনেশিয়ায় বোয়িংয়ের ৭৩৭ ম্যাক্স বিধ্বস্ত হয়ে ১৮৯ আরোহী নিহত হওয়ার পরই প্লেনের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ জানিয়েছিলেন পাইলটরা। অটোপাইলট সিস্টেম নিয়ে সমস্যার কথা জানানো হয়। মূলত প্লেন অবতরণের সময়ই সমস্যায় পড়তে হয় বলেও জানিয়েছিলেন পাইলটরা।

সূত্র: জাগো নিউজ
এম ইউ/২৯ ডিসেম্বর ২০২১

বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স: নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল ইন্দোনেশিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: