করোনায় মৃত্যুর ভয়াবহতা জানাতে সৈকতে কবর খনন

করোনা ভাইরাসে বিশ্বে এখন সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে ব্রাজিল। দিন দিন বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। অথচ তা নিয়ে যেন কোনো মাথা ব্যথা নেই দেশিটির প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোর।

ফলে করোনা মোকাবেলায় ব্রাজিল সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে সেখানকার স্বেচ্ছাসেবীরা।

তারা রিও ডি জেনিরোর কোপাকাবানা সমুদ্র সৈকতে বৃহস্পতিবার প্রতীকী ১০০টি কবর খোঁড়েছেন।

যার মাধ্যমে তারা স্মরণ করছেন করোনা মহামারিতে মারা যাওয়া লোকদের। জানান দিচ্ছেন, করোনা মোকাবেলায় সরকারের ‘অক্ষমতা’র কথা ও মৃত্যুর ভয়াবহতা।

রিও ডি পাজ গ্রুপের সদস্যরা কালো ক্রসসহ প্রতীকী কবরগুলো খনন করেন।

এর আয়োজক আন্তোনিও কার্লোস কস্তা সংবাদ সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘আমাদের প্রেসিডেন্ট এখনো বুঝতে পারেননি যে এটি ব্রাজিলের ইতিহাসে অন্যতম একটি নাটকীয় সংকট।’

তিনি বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে মারা যাওয়া পরিবারগুলোতে আজ শোক বইয়ে যাচ্ছে। মানুষের বেকারত্ব ও ক্ষুধা বাড়ছে।’

করোনা ভাইরাসে বিশ্বে তৃতীয় সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে ব্রাজিল। খুব শিগগিরই মৃতের দিক দিয়ে যুক্তরাজ্যকে ছাড়িয়ে যাবে দেশটি।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছে। খবর: বিবিসি

ইত্তেফাক/জেডএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: