বাবাকে পথে বসাল ছেলের গেমের নেশা!

অনলাইনে ভার্চুয়ালযুদ্ধ করে ছেলে। তার জন্য দরকার প্রচুর বন্দুক-গুলি। সেসব কিনতে ছেলের একমাত্র ভরসা বাবার ব্যাংক ব্যালেন্স। অনলাইন গেমের ভার্চুয়াল বন্দুক-গুলি কিনতেই বাবার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ১৬ লাখ টাকা তুলে খরচ করেছে ছেলে। ১৭ বছরের ছেলের এমন কাণ্ড জানার পর তার বাবা-মাও অবাক। ছেলের উচ্চ শিক্ষার জন্য জমিয়ে রেখেছিলেন ঐ টাকা। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পাঞ্জাবে।

পাঞ্জাবের ঐ কিশোর লকডাউনের সময় অনলাইনে পড়াশোনার জন্য বাবার স্মার্টফোন ব্যবহার করছিল। আর তখনই অনলাইনে গেমের জন্য বাবার অ্যাকাউন্ট থেকে পেমেন্ট করতে থাকে সে। ঐ স্মার্টফোনে তার বাবার ব্যাংকের বিবরণ এবং কার্ডের সব তথ্য ছিল। ফলে তার পক্ষে কাজটা সহজ হয়ে যায়। টানা এক মাস ধরে ভার্চুয়াল গোলাবারুদ ও বন্দুক কিনেছে ঐ ছেলে। এর পর ছেলেটির বাবা ব্যাংক স্টেটমেন্ট পাওয়ার পরই আঁতকে ওঠেন। অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কাটার পর ফোনে আসা মেসেজ মুছে ফেলত ছেলে। কাজেই তার বাবা কিছু জানতে পারতেন না। এভাবেই চলছিল। ঐ ছেলে আবার মায়ের প্রভিডেন্ট ফান্ড থেকেও টাকা তুলেছিল।

পুলিশ বলছে, গেম প্রস্তুতকারক সংস্থাকে দোষারোপ করা যাবে না। কারণ ঐ ছেলে ইচ্ছাকৃতই গেমের গোলাগুলি কিনতে টাকা খরচ করেছে। ছেলের এমন কাণ্ড জানার পর ছেলেকে সাইকেল সারানোর গ্যারেজে কাজে লাগিয়ে দিয়েছেন। —দি ট্রিবিউন

ইত্তেফাক/এমএএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: