উইঘুর মুসলিম নির্যাতন: চীনা কর্মকর্তাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতন এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে চীনের উচ্চ পদস্থ চার কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। বৃহস্পতিবার মার্কিন সরকারের পক্ষ থেকে এই নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি জানানো হয়। এর ফলে, বেইজিং-ওয়াশিংটন সম্পর্ক আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞায় পড়া চার কর্মকর্তা হলেন চীনের জিনজিয়াং প্রদেশ কমিউনিস্ট পার্টির সেক্রেটারি চেন কুয়াংগু, অঞ্চলটির সাবেক পার্টি সেক্রেটারি ঝু হাইলুন, জিনজিয়াং পাবলিক সিকিউরিটি ব্যুরোর পরিচালক ও পার্টি সেক্রেটারি ওয়াং মিংশান এবং সাবেক পার্টি সেক্রেটারি হুয়ো লিউজুন।

নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে মার্কিন হোয়াইট হাউজের এক কর্মমর্তা সাংবাদিকদের বলেন, এটা কোনো ঠাট্টার বিষয় নয়। জিনজিয়াংয়ে নিজেদের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সঙ্গে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি যা করছে তার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্র বিশ্ববাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।,

নিষেধাজ্ঞাপ্রাপ্তদের মধ্যে সর্বোচ্চ পদাধিকারী চীনা পলিটব্যুরোর সদস্য চেনের বিরুদ্ধে উইঘুরসহ অন্যান্য জাতিগত সংখ্যালঘুদের ওপর নজরদারি, বন্দী করা, জোরপূর্বক দীক্ষাদানের মতো গুরুতর অভিযোগ আনা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, চীনের জিনজিয়াং প্রদেশে ১০ লাখেরও বেশি মুসলিমকে ক্যাম্পে আটকে রেখে নির্যাতন করা হচ্ছে। তবে বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে বেইজিং।

এদিকে চার কর্মকর্তার ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেনি চীন সরকার। রয়টার্স, আল জাজিরা।

ইত্তেফাক/এআর

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: