জঙ্গিদের নিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যমের খবর প্রত্যাখ্যান করল পাকিস্তান

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর ব্যাংক একাউন্ট খুলে দেওয়া হয়েছে বলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যমে। তবে এ খবর প্রত্যাখ্যান করেছে ইসলামাবাদ। মঙ্গলবার পাক পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আয়েশা ফারুকি এ তথ্য জানান।

ইসলামাবাদে এক বক্তৃতায় ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলোর খবর প্রত্যাখ্যান করে আয়েশা বলেন, পাকিস্তান সরকার নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর ব্যাংক একাউন্টের পাশাপাশি তাদের সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করেছে।

তিনি বলেন, শুধু তাই নয় জাতিসংঘের সন্ত্রাসী তালিকা থেকে যেসব জঙ্গির নাম বাদ দেয়া হয়েছে তাদের ব্যাপারেও ইসলামাবাদের নীতিতে পরিবর্তন আসেনি। তারা তাদের ব্যাংক একাউন্ট ব্যবহার করতে পারছে না।

পাকিস্তান সরকার ২০১৮ সালে ‘এফএটিএফ’ভুক্ত দেশগুলোর অন্তর্ভুক্ত হওয়ার পর এই আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য ব্যাপক প্রচেষ্টা চালিয়েছে। এই প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে আন্তর্জাতিক কালো তালিকায় অন্তর্ভুক্ত ব্যক্তিদের পাশাপাশি নিষিদ্ধ ঘোষিত সব জঙ্গি গোষ্ঠীর ব্যাংক একাউন্ট জব্দ করেছে।

আরও পড়ুন: নামাজের সময় ঢেকে দেয়া হবে হায়া সোফিয়ার খ্রিষ্টীয় চিহ্ন

কোনো দেশ এফএটিএফ’ভুক্ত দেশ হতে পারলে তার পক্ষে বিদেশি পুঁজি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার কাজ সহজ হয়। এ ছাড়া, এই আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কালো তালিকাভুক্ত দেশগুলো নানা ধরনের আর্থিক সুবিধা থেকে বঞ্চিত হয়। ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলোতে প্রকাশিত খবরের সত্যতা প্রমাণিত হলে এফএটিএফ পাকিস্তানকে তার কালো তালিকায় ফেলে দিতে পারে। পার্সটুডে।

ইত্তেফাক/আরআই

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: