করোনার ভয়ে ‘ভিডিও সমাবেশ’ করার সিদ্ধান্ত ট্রাম্পের

দুনিয়াজুড়ে মহামারি সৃষ্টি করা করোনা ভাইরাসকে শুরু থেকেই তাচ্ছিল্য করে এসেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি নিজে মাস্ক পরতেন না, অন্যদেরও মাস্ক না পরে ‘সাহস’ দেখাতে উত্সাহ দিতেন। এমনকি করোনা পরিস্থিতিকে গুরুত্ব না দিয়ে তিনি ওকলাহোমায় নির্বাচনি সমাবেশেরও আয়োজন করেন সম্প্রতি। তিনি বলেছিলেন, তার সমর্থকরাও করোনাকে ভয় করে না। তাই ১০ লাখ লোক তার জনসভায় আসবে। কিন্তু ১০ লাখ তো দূরের কথা, ১০ হাজার লোকও যায়নি সেখানে। পরে ট্রাম্প ভীষণ লজ্জা পেয়ে আপাতত আর জনসভা করবেন না বলে ঘোষণা দেন।

তবে ট্রাম্প বেশি ভয় পেয়েছেন হোয়াইট হাউজে বেশ কয়েক জন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর। এমনকি ট্রাম্পের ছেলের গার্লফ্রেন্ডও করোনায় আক্রান্ত। এখন ট্রাম্প নিয়মিত মাস্ক পরছেন। আর মাস্ক পরেই দায়িত্ব সারছেন তা নয়। এখন তিনি সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার বিষয়েও যথেষ্ট সতর্ক। এখানেই শেষ নয়, আগামী নভেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনের জন্য তিনি আর সরাসরি জনসভা কিংবা পথসভা করতে যাবেন না। করোনা পরিস্থিতি যুক্তরাষ্ট্রে দিন-দিন লাগামহীন হয়ে পড়ায় তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে হোয়াইট হাউজ সূত্র জানিয়েছে। ট্রাম্প বলেছেন, এখন থেকে তিনি ‘ভিডিও সমাবেশ’ করবেন। অর্থাত্ অনলাইনে লাইভ ভাষণ দেবেন আর তার সমর্থকরাও অনলাইনেই শুনবে তার বক্তব্য। শনিবার তিনি সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, করোনা ভাইরাস আমাদের স্বাভাবিক জীবনের গতি কেড়ে নিয়েছে এটা আর অস্বীকার করা উচিত হবে না।

ইত্তেফাক/এএম

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: