ভারতে রেজিস্ট্রেশন ছাড়া সীমান্তবর্তী দেশগুলো সরকারি কোন কাজ করতে পারবে না

অভ্যন্তরীণ ইন্ডাস্ট্রিজ বিভাগে রেজিস্ট্রেশন ছাড়া ভারতে সরকারি কোন টেন্ডারে তার সীমান্ত সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর প্রতিষ্ঠান সমূহ অংশগ্রহণ করতে পারবে না বলে জানিয়েছে দেশটির সরকার। সীমান্তবর্তী সকল দেশের কথা উল্লেখ থাকলেও, মূলত চীনকে নিজ দেশে ব্যবসা করতে না দেয়ার জন্যই এমন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারত সরকারের সঙ্গে যে কোন পণ্য বা খাদ্যদ্রব্য নিয়ে ব্যবসা করার ক্ষেত্রে সকল প্রতিষ্ঠানকে তাদের দেশের নাম উল্লেখ করার বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হয়েছে। সেই সঙ্গে সীমান্ত সংলগ্ন দেশগুলোর প্রতিষ্ঠানগুলিকে ভারত সরকারের সঙ্গে ব্যবসার ক্ষেত্রে অবশ্যই দেশটির ইন্ডাস্ট্রিজ বিভাগের অধীনে নিবন্ধন করতে হবে। মূলত ভারতের সঙ্গে চীনের সীমান্ত দ্বন্দ্বের কারণে এমন নিয়ম প্রদান করা হয়েছে। যে কোন সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে এই নিয়ম বলবত থাকবে বলে জানানো হয়।

অবশ্য ভারতের একটি কূটনৈতিক সূত্র জানিয়েছে, পাবলিক প্রসিকিউটরের এই নতুন নিয়মে বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য একটি বিকল্প ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। যার আওতায় সীমান্ত সংশ্লিষ্ট সকল দেশের আওতায় থেকেও পণ্য সরবরাহের ক্ষেত্রে এই সমস্যার সম্মুখিন হবে না বাংলাদেশ। জানানো হয়, এলওসি ফান্ডের আওতাধিন বাংলাদেশের মত প্রতিবেশি দেশের ক্ষেত্রে এই নিয়মগুলো কার্যকর হবে না। অর্থাৎ এই নিয়মের মাধ্যমে সবচাইতে বেশি ক্ষতির মুখে পড়বে চীনের প্রতিষ্ঠানগুলো।

চীনের বেশ কিছু টেক প্রতিষ্ঠান বন্ধের পর ভারতের এই উদ্যোগের কারণে দুই দেশের মধ্যকার বাণিজ্যিক কার্যক্রমে ভাটার ইঙ্গিত বেশ স্পষ্ট। চীন থেকে ভারত ২০১৯ সালে মোট ৭০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের পণ্য আমদানি করে। ভারতের সঙ্গে চীনের আমদানি-রপ্তানির পার্থক্য প্রায় ৫০ বিলিয়ন ডলার বলে দাবি করা হয় এই প্রতিবেদনে। যা ভারতের প্রতিবেশী যে কোন দেশের তুলনায় অনেক বেশি।

নতুন এই নিয়মে বেশ স্পষ্ট করে জানানো হয়, ভারতের সরকারি যে কোন টেন্ডার, সরকারি ও আধা সরকারি ব্যাংক ও প্রতিষ্ঠান এবং পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশিপ সকল প্রতিষ্ঠানের জন্য এই নিয়ম কার্যকর হবে। সেই সঙ্গে কোন প্রতিষ্ঠান যদি সরকারি কাজ নেয়ার পরে তা সাব কন্টাক্টে এমন কোন প্রতিষ্ঠানকে দেয় যা এই নিয়ম মানেনি, তাহলে উভয় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বাণিজ্য চুক্তি বাতিল করা হবে। দেশটির রাজ্য সরকারগুলোকেও এই নিয়ম মেনে চলার নির্দেশনা দেয়া হয়।

ইত্তেফাক/আরএ

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: