নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে দুর্ভোগ কমছে শ্রীনগরের বাসিন্দাদের

সরকারে নানা উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের কারণে ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগরের বাসিন্দাদের দুর্ভোগ কমছে। শহরটির অবকঠামোগত উন্নয়নের জন্য ২০১৩ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ সম্পন্ন করেছে ভারত সরকার।

শহরটি যানজট নিরসনে জাহাঙ্গীর চক থেকে রামবাগ পর্যন্ত প্রায় আড়াই কিলোমিটার দীর্ঘের একটি ফ্লাইওভার ৩০০ কোটি রুপি ব্যয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। জানা গেছে, ফ্লাইওভারটির কাজ ২০১৩ সালে শুরু হয় শেষ হয় ২০১৯ সালে। এই ফ্লাইওভারের কারণে শ্রীনগরের প্রায় চার লাখ বাসিন্দা যানজটের ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেয়েছেন।

এ ছাড়া শ্রীনগরের শহরের বন্যা ঠেকাতে ঝেলুম নদীর পাড় রক্ষার কাজ সম্পন্ন করা হয়,। ভারতীয় ৩৫৮ কোটি রুপি ব্যয়ে সম্পন্ন এই কাজ শুরু হয় ২০১৫ সালে। এছাড়া শ্রীনগর শহরের জলাবদ্ধতা দূর করতে সাড়ে ৭৫ কোটি রুপি খরচে আরেকটি প্রজেক্টের কাজ শেষ করেছে ভারত সরকার। ওই প্রজেক্টের আওতায় কমপক্ষে ২১ হাজার মানুষ ত্রাণ পাচ্ছেন।

শ্রীনগরের খেলাধুলার অবকাঠামোও গত ছয় বছরে আমুল পরিবর্তন করেছে সরকার। শহরটির খেলাধুলা অবকাঠামোর উন্নয়নের জন্য ১০ কোটি রুপির সাতটি প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছিল। এছাড়া উচ্চ শিক্ষার উন্নয়নের জন্য শ্রীনগরে সাড়ে ৬৬ কোটি টাকার ১৯টি প্রজেক্টের কাজ শুরু করেছে সরকার। যেগুলোর বেশিরভাগই শেষ হয়েছে। শ্রীনগরের বিভিন্ন কলেজের উন্নয়ন এবং প্রফেশনাল কোর্সের ওপর দক্ষতা বাড়ানোর জন্যই নানা উদ্যোগ হাতে নিয়েছে ভারত সরকার। শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে শ্রীনগরের ২৫টি স্কুলকে মডেল স্কুলে পরিণত করা হয়েছে । যাতে বেসরকারি স্কুলের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে সরকারি স্কুলগুলোও এগিয়ে যেতে পারে। এছাড়া শ্রীনগরের সঙ্গে যোগাযোগ উন্নয়নের জন্য দীর্ঘ সময় ধরে ঝুলে থাকা পাঁচটি সেতুর কাজও ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। ওই কাজগুলো প্রায় সাড়ে ৫৯ কোটি রুপিতে সম্পন্ন করেছে ভারত সরকার।

করোনাকালেও শ্রীনগরের জনগণকে পর্যাপ্ত সহায়তা করছে ভারত সরকার। শহরটিতে এ পর্যন্ত ২ হাজার ৬০০ শয্যা বিশিষ্ট কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। এসব স্থানে উপসর্গহীন করোনা রোগীদের রাখা হচ্ছে। এছাড়া শ্রীনগরে স্বাস্থ্য খাতেও গত ছয় বছরে অবকাঠামোগত ব্যপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। পাশাপাশি বর্তমানে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন হাসপাতালের রোগী ধারণ ক্ষমতা বাড়ানো হচ্ছে।

শ্রীনগরের বিদ্যুৎ খাতেও ব্যপক উন্নয়ন করেছে ভারত সরকার। শ্রীনগর শহর এবং তার আশপাশের জেলাগুলোতে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়ার লক্ষ্যে ১৭৮ কোটি রুপি ব্যয়ে কয়েকটি প্রজেক্ট হাতে নেয়া হয়েছে। এছাড়া শ্রীনগরের খাবার পানির সক্ষমতা বাড়ানোর লক্ষ্যে ১৪৯ কোটি রুপি ব্যয়ে পানি বিতরণ ব্যবস্থারও উন্নয়ন করা হয়েছে।

ইত্তেফাক/এআর

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: