করোনার তথ্য ধ্বংস করেছে চীন, প্রথমদিকে প্রতিকারের চেষ্টাও ছিল দুর্বল!

গত ডিসেম্বরের শেষের দিকে চীনের উহানে প্রথম করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয় । দেশটি করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সঠিক মাত্রা গোপন হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ভাইরাসটির প্রথম শনাক্তকারী এক চীনা চিকিৎসক। তিনি বলেছেন, চীনে শুরুর দিকে করোনা সংক্রামণের অনেক তথ্য প্রমাণ ধ্বংস করে ফেলা হয়েছে। এছাড়াও করোনা ভাইরাসের প্রতিকারে চীনের চেষ্টাও ছিল খুব দুর্বল।

চীনে প্রথম করোনা শনাক্তকারী চিকিৎসক কুক ইয়ং ইওয়েন বিবিসিকে জানান, তার বিশ্বাস স্থানীয় কর্মকর্তারা প্রাথমিক সংক্রমণের সঠিক মাত্রা ধামাচাপা দিয়েছিলেন।

উহান শহরে করোনা চিকিৎসায় নিয়োজিত বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক কুক ইয়ং বলেন, আমরা যখন হুয়ানান সুপারমার্কেটে যাই, সেখানে তখন দেখার মতো কিছু ছিল না। কারণ ইতোমধ্যেই বাজারটি পরিষ্কার করে ফেলা হয়েছে। তার মানে বলা যায় যে অপরাধের আলামত ততোক্ষণে নষ্ট করে ফেলা হয়েছে। ফলে ভাইরাসটি কোন উৎস থেকে মানবদেহে এসেছে সেটা আমরা চিহ্নিত করতে পারিনি।

তিনি আরও বলেন, আমার সন্দেহ যে তারা উহানে স্থানীয়ভাবে কিছু ধামাচাপা দিয়েছে। যেসব স্থানীয় কর্মকর্তার এসব তথ্য সরবরাহ করার কথা ছিল তাদেরকে সেটা খুব দ্রুত করতে অনুমতি দেওয়া হয়নি।

আরও পড়ুন: ভ্যাকসিন দ্রুত পেতে বিনিয়োগ দ্বিগুণ যুক্তরাষ্ট্রের

বিবিসি জানায়, ডিসেম্বরের শেষের দিকে যে ডাক্তার এই ভাইরাসের ব্যাপারে তার সহকর্মীদের সতর্ক করে দিয়েছিলেন কর্তৃপক্ষ তাকে শাস্তি দিয়েছে। করোনা ভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে শুরুর দিকে চীনের ভূমিকা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন আগে থেকেই। তবে চীন এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

ইত্তেফাক/আরআই

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: