পাক-আফগান সীমান্তে বাড়ছে উত্তেজনা, সংঘর্ষে ‘নিহত ২২’  

পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের সীমান্তে ক্রমশ বাড়ছে উত্তেজনা। গত বৃহস্পতিবার দেশ দুইটির সীমান্তে সংঘর্ষে ডজন খানেকের বেশি আফগান বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে। সেইসঙ্গে আহত অনেকে। আফগানিস্তান কর্তৃপক্ষ এই তথ্য জানিয়েছে।

সংঘর্ষে পাকিস্তানেরও অন্তত ৭ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে বলে পাক কর্মকর্তারা অভিযোগ করেছেন।

আফগানিস্তানের কান্দাহারের (যার সীমান্ত পাকিস্তানের সঙ্গে) একজন মুখপাত্র আহমদ বাহির আহমাদি বলেন, সংঘর্ষে ১৫ জন নিহত ও আহত হয়েছে ৮০ জন। নাম প্রকাশে আরেকজন আফগান কর্মকর্তা জানান, এক ডজনের বেশি আফগান বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে।

দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, অন্তত ৯ জন নিহত হয়েছেন, এদের মধ্যে একজন শিশুও রয়েছে। তিনি সংঘর্ষের জন্য পাকিস্তান বাহিনীকে দোষারোপ করেন।

এক বিবৃতিতে দেশটির মন্ত্রণালয় সতর্ক করে জানিয়েছে, আফগান বিমান বাহিনী ও স্পেশাল বাহিনীর ইউনিট উচ্চ সতর্কতায় আছে। এবং সংঘর্ষ অব্যাহত থাকলে তা প্রতিশোধ নিতে প্রস্তুত।

তবে আফগানিস্তানের দেওয়া বিবৃতি প্রত্যাখ্যান করেছে পাক পররাস্ত্র মন্ত্রণালয়। দেশটির মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে শুক্রবার বলা হয়েছে, আফগান বাহিনী আন্তর্জাতিক সীমান্তের পাকিস্তানের পাশে জড়ো হওয়া নিরীহ লোকদের ওপর গুলি চালায়। তাদের বাঁচাতেই সেলফ ডিফেন্স প্রক্রিয়ায় পাকিস্তান বাহিনী পাল্টা জবাব দেয়।

এছাড়া বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আফগান বাহিনী প্রথমে গুলি চালায় এবং পাকিস্তানের পক্ষে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে পাকিস্তানের অন্তত ৭ জন বেসামরিক লোক নিহত ও ২৮ জন আহত হয়েছে বলে খবরে বলা হয়েছে।

সম্প্রতি দেশ দুইটির বাহিনীর মধ্যে সীমান্তে সংঘর্ষের ঘটনা অনেক বেড়েছে। ওয়াশিংটন পোস্ট, আল জাজিরা

ইত্তেফাক/এসআর

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: