ছেলের কাণ্ডে বিপাকে জাপানের প্রধানমন্ত্রী সুগা

টোকিও, ২৬ ফেব্রুয়ারি – করোনাভাইরাস টিকা কর্মসূচি, অর্থনীতির নাজুক অবস্থাসহ নানা বিষয়ে বিব্রতকর অবস্থায় আছে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগার সরকার। এসবের বাইরে নিজের পরিবারের সদস্যদের অনিয়ম-দুর্নীতি প্রকাশ হওয়ায় নতুন করে সমস্যায় পড়েছেন সুগা।

নতুন এ সমস্যার মূলে আছেন সুগার বড় ছেলে সেইগো সুগা। তিনি টেলিভিশন অনুষ্ঠান নির্মাতা ও উপগ্রহ সম্প্রচার চালানো একটি কোম্পানিতে চাকরি করেন। এসব কোম্পানির লাইসেন্স সাধারণত জাপানের যোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন : সেনা ‘অভ্যুত্থান চেষ্টা’ রুখতে রাস্তায় আর্মেনিয়ার জনগণ

সেইগো সুগার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল যে মন্ত্রণালয়ের চারজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা তার সঙ্গে টোকিওর একটি রেস্তোরাঁয় পানাহার করেছেন। জাপানে মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের ব্যবসাসংক্রান্ত স্বার্থ জড়িত থাকা বেসরকারি খাতের কোনো কোম্পানির নির্বাহীদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ বজায় রাখাকে স্বার্থের দ্বন্দ্ব বা কনফ্লিক্ট অব ইন্টারেস্ট হিসেবে গণ্য করা হয়। সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য যা সদাচরণবহির্ভূত।

জাপানের সংসদে নিয়মিত প্রশ্নোত্তর পর্বে প্রধানমন্ত্রী সুগাকে ছেলের আচরণের জন্য বিরোধী দলের প্রশ্নবাণে জর্জরিত হতে হচ্ছে। সুগা অবশ্য সাংবাদিকদের বলেছেন, তার ছেলের এ ঘটনায় তিনি সত্যিকার অর্থে দুঃখিত এবং জাপানের জনগণের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। শুরুতে অবশ্য তিনি আত্মপক্ষ সমর্থন করে বলেছিলেন, তার ছেলে প্রাপ্তবয়স্ক। ছেলে কী করছে না করছে তার ওপর বাবার কোনো হাত নেই।

সূত্র : বাংলাদেশ জার্নাল
এন এইচ, ২৬ ফেব্রুয়ারি

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: