চিকিৎসা সরঞ্জাম নিয়ে কাবুলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিমান

তালেবান আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর প্রথমবারের মতো ওষুধ ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের চালান নিয়ে সেখানে নেমেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) একটি বিমান। ডব্লিউএইচওর আঞ্চলিক পরিচালক আহমেদ আল মান্ধারি জানান, ‘সমস্যা সমাধানে কয়েকদিনের বিরামহীন কাজের পর আমরা এখন সন্তুষ্ট যে, এখন আমরা আফগানিস্তানের স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম পুনরায় আংশিকভাবে সরবরাহ করতে সক্ষম হব।’ তাছাড়া এই বিমান পৌঁছানোর মধ্য দিয়ে আপাতত ডব্লিউএইচওর স্বাস্থ্যসেবা সচল রাখা সম্ভব হবে বলেও জানান তিনি।

গত শুক্রবার ডব্লিউএইচও জানিয়েছিল, আফগানিস্তানে তাদের চিকিৎসা সরঞ্জাম সরবরাহ কয়েক দিনের মধ্যেই শেষ হয়ে যেতে পারে। সে সময় তারা আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলীয় মাজারি-ই-শরিফের সঙ্গে পাকিস্তান কর্তৃপক্ষের সহায়তায় আকাশ সংযোগ স্থাপনের আশা করছে বলে ঘোষণা দিয়েছিল। সোমবার ১২ দশমিক পাঁচ টন সরবরাহ কাবুলে পৌঁছেছে। এর মধ্যে আছে ট্রমা কিট এবং জরুরি আরো স্বাস্থ্যসেবা কিট, যা দিয়ে ২ লাখের বেশি মানুষকে মৌলিক স্বাস্থ্যসেবা দেওয়া, সাড়ে ৩ হাজার মানুষের সার্জারি করা এবং ৬ হাজার ৫০০ ট্রমা রোগীর চিকিত্সা করা সম্ভব হবে। এসব স্বাস্থ্যসেবা সরঞ্জাম আফগানিস্তান জুড়ে ২৯টি প্রদেশের ৪০টি স্বাস্থ্যকেন্দ্রে সরবরাহ করা হবে বলে জানিয়েছে ডব্লিউএইচও।

আফগানিস্তানের স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা ভেঙে পড়ার ঝুঁকির মুখে রয়েছে বলে রয়টার্স বার্তা সংস্থাকে জানিয়েছে দুটো প্রধান ত্রাণ সংস্থা। আফগানিস্তান তালেবানের দখলে চলে যাওয়ার পর বিদেশি দাতারা সহায়তা বন্ধ করে দিলে ত্রাণ সংস্থাগুলো এই সতর্কবার্তা দেয়। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের স্পেশাল ইন্সপেক্টর জেনারেল ফর আফগান রিকন্সট্রাকশন (সিগার) এর তথ্যমতে, আফগানিস্তানের বাজেটের ৮০ শতাংশই আসে বিদেশি ত্রাণ তহবিল থেকে। তালেবান গত ১৪ আগস্ট আফগানিস্তান দখলের পর থেকে এ পর্যন্ত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এবং দেশ অর্থ সহায়তা বন্ধ করেছে। আফগানিস্তানে চলমান প্রকল্পগুলোতে সর্বশেষ তহবিল স্থগিত করেছে বিশ্বব্যাংক।

ইত্তেফাক/এসএ

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: