ভিন্ন স্বাদের হায়দ্রাবাদি চিংড়ি বিরিয়ানি

এই হালকা শীতে বিরিয়ানি খাওয়ার মজাই আলাদা। মাংসের বিরিয়ানি তো অনেক হলো। এইবার না হয় হয়ে যাক মাছের বিরিয়ানি। কী অবাক হচ্ছেন? মাছের আবার বিরিয়ানি কীসের? চিংড়ি মাছ দিয়েও তৈরি করা যায় মজাদার হায়দ্রাবাদি বিরিয়ানি। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক রেসিপিটি।

উপকরণ:
১। ৫০০ গ্রাম চিংড়ি মাছ
২। ৫০০ গ্রাম বাসমতি চাল
৩। ২টি বড় পেঁয়াজ কুচি
৪। ৬টি কাঁচা মরিচ
৫। ১ কাপ পুদিনা পাতা
৬। ১.৫ চা চামচ আদা রসুনের পেস্ট
৭। ১টি লেবু
৮। ৩৭৫ গ্রাম টকদই
৯। ১/২ চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
১০। ১/২ চা চামচ মরিচ গুঁড়ো
১১। ১ চা চামচ শাহী জিরা
১২। লবণ
১৩। ১ চা চামচ মৌরি
১৪। ৪টি দারুচিনি
১৫। ৫টি লবঙ্গ
১৬। ৪টি এলাচ
১৭। তেল
১৮। ১ টেবিল চামচ ঘি

প্রণালী:
১। শাহী জিরা, মৌরি, লবঙ্গ, এলাচ, দারুচিনি সবগুলো মশলা হালকা ভেজে গুঁড়ো করে বিরিয়ানি মশলা তৈরি করুন।

২। পেঁয়াজ কুচি করে বেরেস্তা করুন।

৩। চিংড়ির সাথে হলুদ গুঁড়ো, মরিচ গুঁড়ো, বিরিয়ানি মশলা, লবণ, পেঁয়াজ বেরেস্তা, কাঁচা মরিচ, লেবুর রস, পুদিনা পাতা কুচি দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন।

৪। চিংড়ির মিশ্রণের সাথে টকদই দিয়ে দিন। এটি ৩০ মিনিট  মেরিনেট করার জন্য রেখে দিন।

৫। হাঁড়িতে পানির মধ্যে ৩টি দারুচিনি, ৫টি লবঙ্গ, তারা মৌরি, ৪টি এলাচ,  ১/২ টেবিল চামচ শাহি জিরা, ১/২ চা চামচ মৌরি, ২টি তেজপাতা, লবণ, পুদিনা পাতা, বিরিয়ানি মশলা এবং তেল দিয়ে চুলায় দিন।

৬। পানি ফুটে আসলে বাসমতী চাল দিয়ে দিন। চাল ভালো করে ধুয়ে ৩০ মিনিট পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। উচ্চ আঁচে ৪-৫ মিনিট রান্না করুন।

৭। আরেকটি প্যানে সামান্য তেল দিয়ে মেরিনেট করা চিংড়ি দিয়ে দিন।

৮। চিংড়ির মিশ্রণের উপর সিদ্ধ করা চাল তার উপর পেঁয়াজ বেরেস্তা এবং এর উপর পুদিনা পাতা, খাবারের রং  এবং ঘি দিয়ে দিন।

৯। ঢাকনা দিয়ে উচ্চ আঁচে ১০ মিনিট রান্না করুন। ননস্টিক প্যান হলে এর ঢাকনার ফুটোটি লবঙ্গ দিয়ে বন্ধ করে দিন।

১০। ৩০ মিনিট পর ঢাকনা খুলে চামচ দিয়ে নেড়ে নিন। ব্যস তৈরি হয়ে গেল মজাদার হায়দ্রাবাদি চিংড়ি বিরিয়ানি।

এম ইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: