ফোনে যখন কথা বলবেন

মোবাইল ফোন আমাদের জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এমন একটি দিন নেই যেদিন আপনি এই যন্ত্রটি ছাড়া থাকতে পারবেন। প্রিয়জনদের সাথে কথা বলা হোক কিংবা সময় কাটানোর জন্য গেইম খেলা অথবা ইন্টারনেটের মাধ্যমে সারা দুনিয়ার খবর নিমিষে রাখা এই মোবাইল ফোন দ্বারাই কেবল সম্ভব। তবে এই কথা বলার ক্ষেত্রেও আছে কিছু নিয়ম। যা আমরা জানি কিন্তু মনের অজান্তেই তা এড়িয়ে যাই। এই কাজগুলোই মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় আপনার ব্যক্তিত্বকে প্রকাশ করে।

মোবাইল ফোন আপনি সব জায়গাতেই নিয়ে যাচ্ছেন, তাই এতে এমন কোনো রিংটোন ব্যবহার করবেন না যাতে আপনার আশেপাশের মানুষ বিরক্ত হয়। আপনার এই একটি কাজ তাদের মাঝে আপনার ব্যক্তিত্বকে খারাপভাবে উপস্থাপন করতে পারে। এছাড়া থাকে পরিবারের মানুষসহ আত্মীয়স্বজন আর বন্ধু-বান্ধব। তাদের কাছেও আপনার রুচির একটি খারাপ প্রভাব পরতে পারে । তাই ফোনের একটি মার্জিত রিংটোন ব্যবহার করুন।

উচ্চস্বরে কথা বলবেন না। আপনি যদি পাবলিক প্লেসে থাকেন আর অপর প্রান্তের মানুষের কথা বুঝতে না পারেন তবে ফোনের লাইনটি কেটে দিন। আপনি যখন বুঝতে পারছেন অপর প্রান্তের মানুষটি কথা একেবারেই শুনছে না এরপরেও যদি আপনি যখন উচ্চস্বরে কথা বলে যান তবে তা আসলেই বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। তাই সেই সময় ফোনের লাইনটি কেটে দিন অথবা তাকে মেসেজ করে বলুন আই উইল কল ইউ ব্যাক।

ফোনে যখন কথা বলবেন
কিছু কিছু মানুষের মাঝে এই আচরণটি চোখে পরে- বাসে ঝুলে হোক কিংবা গাদাগাদি করে দাঁড়িয়ে থাকা একটি স্থানে তারা মোবাইল ফোনে গল্প করে যাচ্ছে। আপনার এই কাজটি অন্যের কাছে হতে পারে বিরক্তিকর। তাই এরকম অবস্থায় ফোনে কথা বলা থেকে বিরত থাকুন।

আপনার একান্ত কথা মানুষের সামনে মোবাইল ফোনে না বলাই ভালো। কিন্তু তা যদি একান্তই গুরুত্বপূর্ণ হয় তবে আপনি কিছুটা দূরে গিয়ে আস্তে আস্তে কথাগুলো সেরে নিন।

মোবাইল ফোনে কথা বলার সময় অনেকেই অপর প্রান্তের মানুষটিকে কথা বলতে দেয় না। হয়তো নিজেই কথা বলে যায় নয়তো একে অন্যের কথা শেষ না হতেই কথা বলা শুরু করে। যাকে ওভারলেপিং বলে। এতে আপনি না নিজের কথা বলতে পারছেন যা তার কথা বুঝতে পারছেন। তাই হয়তো আগে আপনি কথা সেরে নিন নয়তো তাকে কথা বলতে দিন।

মোবাইলে কথা বলার সময় অনেকেই বিদায় না নিয়েই ফোনের লাইন কেটে দেয়। যা অন্য মানুষটির জন্য অপমানজনক। তাই কথা বলা শেষে সুন্দর করে তাকে বিদায় জানিয়ে ফোনের লাইনটি কাটুন।

এম ইউ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: