নতুন বছরে বদলে যাচ্ছে প্রেমের সংজ্ঞা!

করোনাকালে ঘরবন্দি থেকে আমাদের জীবন এখন অনেকটাই পাল্টে গেছে। এর ফলে পারস্পরিক সম্পর্কগুলোও যেন বদলে গেছে। এখন অতি প্রয়োজন ছাড়া আমরা প্রিয়জনদের সঙ্গে সামনাসামনি দেখা করি না। এর ফলে সম্পর্কের কোথায় যেন একটা তাল কেটে যাচ্ছে। আবার নতুন বছরে যারা নতুন করে প্রেমে পড়তে চান, তাদের হাতেও এখন ডেটিং অ্যাপ। এভাবে নাকি সম্পর্ক বদলে যাচ্ছে প্রতিনিয়িত। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

সমীক্ষা অনুযায়ী, নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েদের কাছে নাকি প্রেমের সংজ্ঞা একেবারেই অন্যরকম। ইন্টারনেটের এই যুগে সব কিছুতেই এখন তাড়াহুড়ো। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রেম হচ্ছে রাতারাতি। আবার এক মেসেজেই ব্রেকআপ!

সমীক্ষা বলছে, নতুন প্রজন্মের কাছে প্রেম মানে শুধুই অপশনের পেছনে দৌঁড়। আজ একজন তো, কাল আরেকজন। শুদ্ধ প্রেম যেন হারাতে বসেছে এই প্রজন্মের হাতে।

ভারতের সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের খবরে বলা হয়েছে, বর্তমান প্রজন্মের পাঁচ হাজার ছেলেমেয়েদের ওপর এই সমীক্ষা করা হয়েছিল। এতে পাওয়া তথ্যে দেখা গেছে, প্রেম নিয়ে বেশির ভাগই দ্বিধাদ্বন্দ্বে রয়েছেন। প্রেমে বিশ্বাসী না হলেও, সম্পর্ককে অন্য সংজ্ঞা দিচ্ছেন তারা।

সমীক্ষা থেকে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী-

ওপেন রিলেসনশিপ

প্রেমে আবদ্ধ থাকাটা একেবারেই পছন্দ নয় নতুন প্রজন্মের। বরং তারা মুক্ত সম্পর্কে থাকতে চান। লাভ ও লোকশান দেখেই প্রেমের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিতে চায় এই প্রজন্ম।

হবি রিলেশন

সম্পর্কের দুনিয়ায় এটা একেবারেই নতুন। হবি বা শখ মিলিয়ে দেখা সাক্ষাৎ, তারপর আড্ডা। আর সেটা যদি জমে যায়, তাহলে সম্পর্ক এগিয়ে চলবে।

শুধুই বন্ধুত্ব

এই সংলাপকেই প্রেমের মন্ত্র বানিয়েছেন বহু উঠতি বয়সেই ছেলেমেয়েরা। আর তাইতো কাউকে ভালো লাগলে প্রেম নয়, বরং গুরুত্ব দিচ্ছে বন্ধুত্বকেই।

হুকআপ

এই শব্দটা একেবারেই নতুন নয়। ডেটিং অ্যাপের যুগে উঠতি বয়সের ছেলেমেয়েরা হুকআপে বেশ স্বাচ্ছন্দ্য। প্রেম, ব্রেকআপের ফাঁদে না পড়ে শুধু শরীরী খেলায় মত্ত হতেই বেশি আগ্রহী হচ্ছেন আজকালের ছেলেমেয়েরা!

এম এস, ০১ জানুয়ারি

নতুন বছরে বদলে যাচ্ছে প্রেমের সংজ্ঞা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: