হতাশা থেকে দূরে থাকার উপায়

মানুষের জীবনে বিভিন্ন কারণে দুঃখ-কষ্ট বা হতাশা আসতেই পারে। তাই বলে হতাশ হয়ে বসে থাকলে তো আর চলবে না। আশেপাশের লোকজনের মুখে হতাশার কথা শুনতে শুনতে নিজেকেও হতাশ ভাবা যাবে না। কেননা দুঃখ-কষ্ট আর হতাশা থেকে বেরিয়ে আসাই হলো জীবন। এ ব্যাপারে জেনে নিন কিছু টিপস-

১. যতোটা পারা যায়, নিত্যদিনের অভ্যাসে পরিবর্তন আনুন। ঝুকি এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। দেখবেন উদ্বেগ আর হতাশা অনেকটাই কেটে গেছে। সম্ভব হলে হতাশার উৎসটা বের করার চেষ্টা করুন। কাজটা যে খুব কঠিন, তা নয়। আর সমস্যা চিহ্নিত করতে পারলে সমাধানও চলে আসবে। গার্লফ্রেন্ড কিংবা বয়ফ্রেন্ড ছেড়ে গেছে? তা সাময়িকভাবে জীবন নীতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। তবে মনে রাখবেন, করার মতো আরো অনেক কাজ আছে। সময়ে পেলেই নতুন চাকরি খুঁজতে পারেন। নতুন-নতুন মানুষদের সাথে পরিচিত হউন। এতে হতাশা থেকে বাঁচতে পারবেন অনেকখানি।

২. অনেকেই শেষ সময়ে কাজ করতে ভালবাসেন। সেটা তাদের অভ্যাসের মধ্যে পড়ে। তাই দেখে আপনিও সেভাবে কাজ করার চেষ্টা করবেন না। কারণ, প্রত্যেকের ভাবনা আলাদা। কাজের ধরনও আলাদা।

৩. ব্যর্থতাই জীবনের শেষ কথা নয়। কাজে ব্যর্থতা আসবেই। তা নিয়ে বসে থাকবেন না। সম্ভব হলে এ সময়ে কোন সফল মানুষের পরামর্শ নিন। পারলে সফল মানুষের জীবনী পড়ুন।

৪. নিজেকে তুচ্চ ভাবার কোন কারণ নেই। কাজের জায়গায় নিজেকে গুরুত্বপূর্ণ করে তুলুন। অপরকে কাজে সাহায্য করুন। দেখবেন আত্মবিশ্বাস বাড়ছে। হতাশাও কাটছে।

এম ইউ

হতাশা থেকে দূরে থাকার উপায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: