ছোটদের জুতা কিনতে যা খেয়াল রাখা দরকার

আপনার ছোট্ট সোনাটি যখন হাঁটতে শেখে, তখন আনন্দই আনন্দ। শিশুর প্রথম পদক্ষেপ প্রত্যেক বাবা-মায়ের কাছে স্মরণীয় হয়ে রয়ে যায়। কিন্তু এই সময় আপনাকে হতে হবে সতর্ক। ছোট্ট সোনাটির জন্য বেছে নিতে হবে সঠিক জুতা। যাতে তার ছোট্ট ছোট্ট পায়ে কোনও আঘাত না লাগে। আরও একটা কারণ হয়, ছোটোবেলা থেকে সঠিক জুতা না পরালে সমস্যা দেখা দিতে পারে পরবর্তীকালে। তাই ছোটো বাচ্চাদের জুতা কেনার আগে এই বিষয়গুলি মাথায় রাখুন-

১. ফ্যান্সি জুতার বদলে আরামদায়ক হবে এমন জুতা বেছে নিন। বাচ্চাদের ফ্যাশনের থেকে বেশি জরুরি তাদের সুস্বাস্থ্য।

২. চামড়া বা সুতি কাপড়ের তৈরি জুতা বেছে নিন। ফ্যান্সি প্লাস্টিকের জুতা প্রথম থেকেই এড়িয়ে চলুন। নয়তো তা ওই ছোট্ট পায়ে অস্বস্তির কারণ দেখা দিলেও দিতে পারে।  দেখবেন, জুতার ওজনও যাতে বেশি না হয়।

৩. শক্ত চামড়ার জুতা এড়িয়ে চলাই ভালো। যেহেতু এই সময় বাচ্চারা খুব তাড়াতাড়ি বড় হয়, তাই খুব টাইট জুতা বাচ্চার জন্য ক্ষতিকর প্রমাণিত হতে পারে।

৪. জুতার সোল ভালো করে দেখে নিন। দেখে নিন বাচ্চা তাতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছে কি না।  খুব বেশি শক্ত সোল এড়িয়ে চলাই ভালো।

৫. ছোটো মেয়েদের হাইহিল স্বাস্থ্যের ক্ষতি করতে পারে।তাই বাচ্চাকে মনের মতো সাজাতে হলে বেছে নিন মনের মতো সুন্দর ও স্টাইলিশ জুতা।এমন জুতা যাতে হিল নেই, কিন্তু আরাম আছে।

৬. বাচ্চার জুতার সাইজ তার পায়ের মাপ বরাবর হওয়া প্রয়োজন।অতিরিক্ত বড় বা খুব টাইট জুতা একেবারেই পরাবেন না।

৭. ক্যানভাস জাতীয় জুতা কিনলে ভালো করে দেখে নিন, তা পায়ে ঠিক করে ফিট হয়েছে কি না।

৮. বাচ্চাদের বাড়ন্ত বয়সে সময় সময় জুতা বদলানো প্রয়োজন। একবার কিনে বহুদিন চলে যাবে এমন চিন্তাভাবনা জুতার ক্ষেত্রে না রাখাই ভালো।

এম ইউ

ছোটদের জুতা কিনতে যা খেয়াল রাখা দরকার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: