কুকুরের সাথে বিয়ে!

this is caption

বিশ বছর আগে জীবনের প্রথম বিয়ে করেন অ্যামান্ডা রজার্স। তারপর কয়েক মাসের মধ্যেই স্বামীর সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে তার।  এরপর বিশটি বছর কাটিয়েছেন প্রিয় পোষা কুকুরের সঙ্গে। একজন উপযুক্ত জীবনসঙ্গীর সব গুণ পোষা প্রাণীর মাঝে খুঁজে পেয়ে শেষমেশ বিয়েই করে বসেছেন কুকুরটিকে।

ঘটনাটি ঘটেছে বৃটেনের দক্ষিণ লন্ডনে। সেখানকার অ্যামান্ডা রজার্স স্বামীর সাথে বিচ্ছেদের পর দারুণ একাকীত্বে ভোগতে থাকেন। আস্তে আস্তে জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠে তার। মানসিক অস্থিরতার সেই সময়গুলোতে প্রিয় কুকুর সেবাই ছিল তার একমাত্র সঙ্গী। অ্যামান্ডা মনে করেন তখন প্রিয় কুকুর সেবা না থাকলে তিনি অবশ্যই মৃত্যুবরণ করতেন। সেবা তাকে মৃত্যুর দুয়ার থেকে ফিরিয়ে এনে নতুন জীবন দিয়েছে। তাকে হাসিয়েছে, তার দুঃখ-কষ্টের সাথী হয়েছে।

প্রিয় কুকুরের এই সহযোগিতার কথা চিন্তা করেই তিনি প্রাণীটিকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন। আর দশটা বিয়ের আয়োজনের মতো তিনিও বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। তৈরি করেন আলাদা করে বিয়ের পোশাক। বিয়ের অনুষ্ঠানে অ্যামান্ডা সেবাকে চুমু খান। ২০০ অতিথি উপস্থিত ছিলেন সেই অনুষ্ঠানে। উপস্থিত সবাই নবদম্পতির উপর কাগজের ফুল ছিটিয়ে দেন। অ্যামান্ডার মতে, সেটা ছিল বিশেষ এক মুহূর্ত।

এসবিএ/যাকা

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: