নারী পুনর্বাসনে ‘ক্যাফে জয়িতা’

this is caption

নির্যাতনের শিকার নারীদের পুনর্বাসনে ‘ক্যাফে জয়িতা’র উদ্বোধন করা হয়েছে। ক্যাফে জয়িতা পরিচালিত হবে নির্যাতিত নারীদের দ্বারা এবং লভ্যাংশ ব্যয় করা হবে নির্যাতিত নারীদের কল্যাণে। পাচার ও নির্যাতনের শিকার নারীরা যাতে নিজে স্বাবলম্বী হতে পারে এজন্য তাদের খাবার প্রক্রিয়াজাতকরণ ও পরিবেশনে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হবে এবং ক্যাফে জয়িতায় তাদের কর্মসংস্থান করা হবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর ইস্কাটনে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি ক্যাফে জয়িতা উদ্বোধন করেন।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, “নির্যাতিত নারীদের সহায়তায় মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সর্বদা পাশে আছে। তাদের কল্যাণে এবং ভবিষ্যতে যেন নির্যাতিত নারীর সংখ্যা কোনোভাবে বৃদ্ধি না পায় তার জন্য কাজ করবে।”

তিনি আরো বলেন, “নারী নির্যাতন প্রতিরোধে নারীদের স্বাবলম্বী হতে হবে। অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ হতে হবে। নারীদের অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধ করার জন্য মন্ত্রণালয় কাজ করছে। বিভিন্ন আইন ও নীতি প্রণয়ন করছে।”

মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আশরাফ হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব তারিক-উল-ইসলাম এবং আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার বাংলাদেশ মিশন প্রধান শরৎ দাস।

প্রথম বছর ঢাকা শহরে বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি কর্পোরেট অফিসে ন্যূনতম দশটি ক্যাফে জয়িতা চালু করা হবে। পর্যায়ক্রমে খাদ্য ব্যবসায় একটি বিশ্বস্ত ব্র্যান্ড হিসেবে ক্যাফে জয়িতা সারাদেশে সম্প্রসারণ করা হবে।

এআইএম/এমএইচ/রর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

%d bloggers like this: