সারা বছর রান্নাঘর রাখুন পোকামুক্ত

সারা বছর রান্নাঘর রাখুন পোকামুক্ত

রান্নাঘরে ঘুরে বেড়াচ্ছে পিঁপড়া, তেলাপোকা এমন আরো কিছু পোকা- খাবারে অরুচি আসার জন্য এই দৃশ্যটিই যথেষ্ট। শুধু যে অরুচি তৈরি করে তাই নয়, এর থেকে ছড়াতে পারে বিভিন্ন রোগজীবাণু। রান্নাঘর পরিষ্কার রাখার পরেও যদি পোকা হয়, তাহলে আপনার জেনে রাখা দরকার কিছু বিশেষ তথ্য। চলুন দেখে নিই সারা বছর রান্নাঘর থেকে পোকা দূরে রাখতে আমাদের কী করা দরকার।

১) ব্যবহার করুন এয়ার টাইট কন্টেইনার

দোকান থেকে কিনে এনে প্যাকেটের ভেতরেই অনেকে রেখে দেন আটা, ময়দা, সুজি, ডাল ইত্যাদি। পাতলা কাগজ বা প্লাস্টিকের প্যাকেট কেটে সহজেই এগুলোর ভেতরে বাসা বাঁধতে পারে পোকা। এ কারণে যত দ্রুত সম্ভব এগুলোকে রাখুন এয়ারটাইট প্লাস্টিক বা কাঁচের কৌটায়। এছাড়া ডাস্টবিন হিসেবেও ব্যবহার করুন এয়ারটাইট কন্টেইনার বা ব্যাগ।

২) খাবারের গুঁড়ো ও ছড়িয়ে পড়া পানীয়

খাওয়ার সময়ে খাবারে ছোট টুকরো, গুঁড়ো ছড়িয়ে পড়তে পারে রান্নাঘরে। আর রান্নার সময়ে ঝোল, স্যুপ বা দুধ হাঁড়ি থেকে উপচে পড়াটাও একেবারেই নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। এগুলো আপনার চোখে পড়ার সাথে সাথে পরিষ্কার করে ফেলুন। শুধু তাই নয়, কিচেন কাউন্টারটপ, কেবিনেট, মিটসেফ, ডাইনিং টেবিল নিয়মিত মুছে পরিষ্কার রাখুন। খাবারের টুকরো আপনার চোখ এড়াতে পারে, কিন্তু পোকারা তা ঠিকই খুঁজে বের করবে।

৩) কাপবোর্ড পরিষ্কার রাখুন

কাপবোর্ডের ভেতরে সাধারণত তৈজসপত্র, খাবারের কৌটা, মশলার কৌটা রাখা হয়। আমরা ভাবি যেহেতু এখানে শুধু শুকনো খাবার থাকে, তা পরিষ্কারের দরকার নেই। আসলে কিন্তু এই অন্ধকার, ছোট জায়গাটায় সহজেই পোকারা আস্তানা গাড়তে পারে। বিশেষ করে পুরনো অব্যবহৃত কৌটা, মেয়াদোত্তীর্নো খাবার এগুলো পোকার আখড়া। এ কারণে নিয়মিত কাপবোর্ড পরিষ্কার করুন।

৪) ফল ও সবজি কিনে ফেলে রাখবেন না

অনেকেই ডাইনিং টেবিলে একটা ফ্রুট বোল সাজিয়ে রাখেন রঙ্গিন ফল দিয়ে। এতে ঘরটা যেমন উজ্জ্বল দেখা যায় তেমন চোখের সামনে থাকায় নিয়মিত ফল খাওয়া হয়। কিন্তু ফল বেশিদিন ফেলে রাখলে তা পেকে গিয়ে পোকা আকর্ষণ করতে পারে। ফল বেশি পাকা বা পচে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকলে সেগুলো রেফ্রিজারেটরে রাখুন।

৫) ঘর মেরামত করুন

পুরনো বাড়ির দেয়াল, মেঝে বা টাইলসের ফুটোফাটায় পোকা লুকিয়ে থাকতে পারে এমনকি বাসা বাঁধতে পারে। বিশেষ করে যেসব জায়গায় আর্দ্রতা বেশি সেখানে মহা আনন্দে থাকে পোকারা। এ কারণে ঘর মেরামত করুন এবং আর্দ্রতা জমে এমন জায়গা শুকনো রাখার ব্যবস্থা করুন।

৬) ময়লা থালাবাসন সিঙ্কে রেখে দেবেন না

পরিষ্কার জায়গা মোটেই পছন্দ করে না পোকারা। সাবান এবং ডিটারজেন্ট তাদের শত্রু। আপনি যদি সিঙ্কে ঘন্টার পর ঘন্টা ময়লা বাসন-কোসন ফেলে রাখেন তাহলে এখানে পোকা আসবেই। তাই খাওয়ার পর পরই এগুলো ধুয়ে ফেলার অভ্যাস তৈরি করুন।

৭) পোষা প্রাণীর খাবার ফেলে রাখবেন না

আমরা নিজেদের ব্যবহার করা বাসন-কোসন ধুয়ে ফেলি, কিন্তু ঘরে থাকা পাখি বা বিড়ালের খাবারের পাত্রটার কী হবে? সেখানেও হামলা করতে পারে পোকা। এ কারণে তাদেরকে খাইয়ে পাত্রটা নিয়মিত পরিষ্কার করে রাখতে ভুলবেন না। আর পানির পাত্রটাও নিয়মিত পরিষ্কার করুন। বাসি পানিতে ডিম পাড়তে পারে মশা।

এম এন / ০১ নভেম্বর

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: