ছেলেরাও ফ্যাশন প্রেমী

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বদলায় ফ্যাশন। আর সেই পালা বদলে নতুন অনেক কিছু যুক্ত হয় সাজ সজ্জায়। মূলত ফ্যাশন বলতে তাই নিজেকে কতটা সুন্দরভাবে নতুনত্বের ছোঁয়ায় উপস্থাপন করা যায় তাই।

পোশাক থেকে শুরু করে এ বাহ্যিক সৌন্দর্য প্রকাশের ক্ষেত্রে তাই পিছিয়ে নয় ছেলেরাও। মেয়েরা যেমন ফ্যাশন সচেতন তেমনি ছেলেরাও তাদের নিজেদের গুছিয়ে পরিপাটিভাবে উপস্থাপন করতে সচেতন। তবে ছেলেদের ফ্যাশনের অনুষঙ্গ এর তালিকা খুব একটা লম্বা নয়, কিন্তু তা সুন্দরভাবে গুছিয়ে নিজের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়াটা মূল বিষয়।

ছেলেদের ফ্যাশনের এ অনুষঙ্গ মানেই ঘড়ি, ওয়ালেট, মানিব্যাগ, বেল্ট, প্যান্ট, পারফিউম, জুতা, শার্ট, টি-শার্ট থেকে শুরু করে আরও বেশ কিছু। তবে নিজেকে উপস্থাপন করার ক্ষেত্রে ছেলেদের হাত ঘড়ি বর্তমান ফ্যাশনের অনেক বড় একটি অংশ। স্টেইনলেস স্টিল কিংবা লেদারের সব দারুণ কম্বিনেশন আর ডিজাইনেবল সব ডায়েল ঘড়িকে আরও নতুনত্ব দিয়েছে। তাই যে কোন অনুষ্ঠানে আপনার হাতে থাকা ঘড়ি আপনাকে সবার থেকে আলাদাভাবে উপস্থাপন করবে।

আরও পড়ুন : অ্যানগেজমেন্টে জামদানি কনে

ঘড়ির পরেই আসে পারফিমের বিষয়। যেহেতু ছেলেদের লম্বা সময় বাইরে থাকতে হয় তাই ঘাম থেকে ব্যাকটেরিয়া জšে§ এলার্জি কিংবা স্কিনের নানা সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। তাই নিজেকে সব সময় ফ্রেশ রাখতে পারফিউম কিংবা বডি স্প্রে হতে পারে আপনার গ্র“মিং আইটেমের সদস্য।

খুচরা টাকা কিংবা দরকারি কাগজপত্র রাখতে ছেলেদের প্রয়োজনীয় একটি অনুষঙ্গ মানিব্যাগ কিংবা ওয়ালেট। এসব ওয়ালেটে যেমন মোবাইল রাখা সম্ভব তেমনি মানিব্যাগে প্রয়োজনীয় কাগজ এবং টাকা গুছিয়ে রাখা সম্ভব।

পোশাকের ক্ষেত্রেও অফিসিয়াল এবং ফর্মাল পোশাকে নানা বিষয়যুক্ত করা হয়েছে। রঙের ক্ষেত্রে অফিসিয়াল পোশাকের ক্ষেত্রে হালকা রং যেমন সাদা, ধূসর, বাদামি জাতীয় রঙের প্রাধান্য বেড়েছে। আর বেল্টের সঙ্গে মিলিয়ে জুতার কালেকশন পুরুষের ব্যক্তিত্বকে উপস্থাপন করেছে ভিন্নভাবে। এ ছাড়া ফর্মাল পোশাকের ক্ষেত্রে ছেলেদের পছন্দের তালিকায় আছে শার্ট, টি-শার্ট কিংবা পাঞ্জাবি।

এছাড়া প্রসাধনীর ক্ষেত্রে ছেলেরা বর্তমানে অনেক বেশি সচেতন। চুলের ধরন বুঝে শ্যাম্পু কিংবা ত্বকের ধরন বুঝে ফেসওয়াশ, ক্রিম, লোশন কিনছেন ছেলেরা। অন্যদিকে যারা ব্যস্ত নিজেদের প্রয়োজনীয় জিনিস কিনতে সময় করে উঠতে পারেন না তারাও সময় বাঁচাতে অনলাইনের মাধ্যমেও প্রয়োজনীয় জিনিস কেনাকাটা করছেন।

এন এইচ, ০২ এপ্রিল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: