বঙ্গবন্ধুর খুনি ভেবেছিল সে আশ্রয় পেয়েছে, এখন তার ফাঁসি হতে পারে

বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফেরত পাঠানো হতে পারে। দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার এ কথা জানিয়েছেন।

গত শুক্রবার মার্কিন ম্যাগাজিন পলিটিকো এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। যার হেডলাইন হচ্ছে, ‘সে ভেবেছিল তার আশ্রয় হয়েছে, এখন তার মৃত্যুদণ্ড হতে পারে।’

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মাসের শেষের দিকে অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম বার ৪০ বছরের পুরনো মামলার কার্যক্রম আবারো শুরু করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে, একটি দীর্ঘ আইনি লড়াই। যেটা হলো একজন রাষ্ট্রপতি হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর এক সাবেক কর্মকর্তার রাজনৈতিক আশ্রয় নিয়ে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, প্রায় ১৫ বছর ধরে, মামলাটি বন্ধ ছিল। তবে এখন, উইলিয়াম বারকে ধন্যবাদ, যে এই মামলার কার্যক্রম আবার শুরু হয়েছে।

আরো পড়ুন: করোনায় চিকিৎসক প্রসূতি ও নবজাতকের মর্মান্তিক মৃত্যু

অভিবাসন আইনজীবীরা বলছেন, গুরুতর অপরাধ করে যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয়প্রাপ্ত লোকদের কাছে এই পদক্ষেপ একটি কঠোর বার্তা। আর সেটা হচ্ছে- বছরের পর বছর আইনি লড়াই চালিয়ে যাওয়ার পরও হঠাৎ করে যে কারো বিরুদ্ধে রায় চলে আসতে পারে।

রাশেদ চৌধুরীর মামলা পরিচালনা করা আইনজীবী মার্ক ভ্যান ডার হউটের মতে, মার্কিন অ্যাটর্নি জেনারেল এরই মধ্যে তার মক্কেলের আশ্রয় লাভের বিষয়ে দেওয়া আগের রায় বাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন।

ইত্তেফাক/জেডএইচ

সূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: