বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা শান্তিপ্রিয় ও মানবিক আদর্শের অংশীদার : প্রধানমন্ত্রী

ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। মহান মুক্তিযুদ্ধে সবাই অংশ নিয়ে এদেশ স্বাধীন করেছে। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা শান্তিপ্রিয় ও মানবিক আদর্শের অংশীদার। বাংলাদেশের মাটি ও মানুষের সঙ্গে মিশে আছে হাজার বছরের বৌদ্ধ ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি। এদেশের বিভিন্ন স্থানে প্রাচীন বৌদ্ধ বিহার ও শিল্প সংস্কৃতির নিদর্শন বিদ্যমান রয়েছে। ধ্যান-জ্ঞান, শিক্ষা, সংস্কৃতি চর্চা ও মুক্তি সংগ্রামে বৌদ্ধরা অসামান্য অবদান রেখেছেন।’

বৃহস্পতিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশের বৌদ্ধদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় গুরু সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরোরের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আয়োজন উপলক্ষে দেয়া এক বাণীতে তিনি এ কথা বলেন।

আরও পড়ুন : আজ দেশে ফিরছেন মির্জা ফখরুল

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‌‘বাংলাদেশের বৌদ্ধদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় গুরু সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরোরের জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া আয়োজনে আমি বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সবার প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’

তিনি বলেন, ‘সংঘরাজ ড. ধর্মসেন মহাথেরোর একজন অসাম্প্রদায়িক চেতনার মানুষ ছিলেন। দেশে আন্তঃধর্মীয় সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে তিনি আজীবন কাজ করেছেন। তিনি ছিলেন বিনয় ও প্রজ্ঞার স্তম্ভ স্বরূপ। দেশে-বিদেশে সংঘসমাজ ও গৃহীসমাজের ঐক্য, সংহতি, সৌহার্দ্য ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় তিনি ধর্ম বাণীর মাধ্যমে উপদেশ দিয়েছেন। মহাকারুণিক তথাগত বুদ্ধের অমিয় মৈত্রী বাণী ও চতুরার্য সত্যের নির্মোহ ধারক-বাহক হিসেবে বৌদ্ধ তথা জাতির কাছে তিনি স্মরণীয় হয়ে থাকবেন। আমি এই অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানের সার্বিক সাফল্য কামনা করছি।’

সূত্র : জাগো নিউজ
এন এইচ, ২৫ ফেব্রুয়ারি

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: