মোহাম্মদ নাসিমকে সিঙ্গাপুর নেওয়ার চেষ্টা চলছে

আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম এমপির শারীরিক অবস্থার কোনো পরিবর্তন হয়নি। উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে নেওয়ার চেষ্টা চলছে।

এরই মধ্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সিঙ্গাপুরের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করা হয়েছে। তবে এখনো পর্যন্ত দেশের চিকিৎসায় সন্তোষ প্রকাশ করে পরিবারের সদস্যরা বলছেন- এখানকার চিকিত্সকরা ছাড়পত্র দিলে তবেই তারা সিঙ্গাপুর নেওয়ার বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করবেন।

এদিকে মোহাম্মদ নাসিমের শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। আবার অবনতিও হয়নি। তার অবস্থা আগের মতোই সংকটাপন্ন এবং এখনো চেতনা ফিরে পাননি। নতুন করে আরো ৭২ ঘণ্টা তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের (আইসিইউ) ভেন্টিলেশন সাপোর্টেই রেখে শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে মেডিক্যাল বোর্ড তা শেষ হবে আগামীকাল শুক্রবার।

মোহাম্মদ নাসিমের সর্বশেষ শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে তার ছেলে তানভীর শাকিল জয় বুধবার সন্ধ্যায় সাংবাদিকদের বলেন, ‘আব্বার অবস্থা এখনো অপরিবর্তিতই আছে। আগের চেয়ে খারাপ হয়নি কিন্তু ভালোও হয়নি। মেডিক্যাল বোর্ড আবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরো ৭২ ঘণ্টা পর্যবেক্ষণে রাখবেন। সেই সময় আগামী পরশু (শুক্রবার) শেষ হবে। এরপর হয়তো তারা আবার বোর্ড মিটিং করবে। সব কিছু দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন।’

উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নেওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘পরশু (সোমবার) ও গতকাল (মঙ্গলবার) পরপর দুইবার টেস্টে বাবার (নাসিমের) করোনা নেগেটিভ এসেছে। সেখান থেকে বাইরে নেওয়ার একটা চিন্তা ছিল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাও ছিল। সেখান থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সিঙ্গাপুরের সঙ্গে একটা যোগাযোগ শুরু করে। কিন্তু এটার এখনো কোনো ফলাফল আসেনি বলেও জানান তিনি।’

দেশের চিকিৎসায় সন্তোষ প্রকাশ করে জয় আরো বলেন, এখানে যে চিকিত্সা হচ্ছে, তা আব্বাকে স্থিতিশীল রাখতে পেরেছে। তাই চিকিত্করা যদি ছাড়পত্র দেন, আর তারা যদি মনে করেন নেওয়া (দেশের বাইরে) যাবে তাহলে আমরা সেটা চিন্তা করব।

মোহাম্মদ নাসিমের চিকিত্সায় গঠিত ১৩ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্য ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বুধবার সন্ধ্যায় বলেন, উনার অবস্থা এখনো সংকটাপন্ন, অবস্থার তেমন উন্নতি হয়নি।

উন্নত চিকিত্সার জন্য মোহাম্মদ নাসিমের দেশের বাইরে নেওয়া প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া বলেন, ওনাকে দেশের বাইরে নেওয়া হবে কি না—সে বিষয়ে আমি এখনো কিছুই জানি না।

বর্তমান শারীরিক অবস্থায় তাকে দেশের বাইরে নেওয়া সম্ভব কি না—জানতে চাইলে তিনি বলেন, চাইলে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে নেওয়া সম্ভব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: