বাজেটে দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেয়া হয়েছে

২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ থাকায় সরকার দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। বৃহস্পতিবার ( ১১ জুন) বিকেলে জাতীয় সংসদে অর্থমন্ত্রীর বাজেট প্রস্তাবের পর এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা বলেন।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, এবারের বাজেটে যে প্রক্রিয়ায় কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে, এটা দুর্নীতিকে চলমান রাখার চেষ্টাই। এই বাজেটে জীবন-জীবিকা ও মানবতার বিষয়টি একেবারে উপেক্ষিত হয়েছে।

সাবেক এই বাণিজ্যমন্ত্রী মনে করেন, জিডিপি ও রাজস্ব খাতে যে প্রবৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, তা দৃশ্যমানভাবেই প্রতারণার শামিল। বাজেট বরাদ্দের বড় বড় অংশ নেওয়া হয়েছে, যেগুলো এরই মধ্যে প্রশ্নবিদ্ধ এবং চাইলেই এগুলো উপেক্ষা করা যেত। বাজেটে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আসার কোনো প্রয়াসই দেখছি না। অথচ দেশের মানুষের স্বাস্থ্য ও সামাজিক নিরাপত্তা খাতে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার দেওয়ার কথা, সেগুলোকে বঞ্চিত করে অন্য প্রকল্পে টাকা বরাদ্দের মানে হলো ‘দুর্নীতির ধারা অব্যাহত রাখা’।

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল আজ ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেন। এবারের বাজেটের আকার ধরা হয়েছে পাঁচ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকা। এতে ঘাটতি ধরা হয়েছে এক লাখ ৯০ হাজার কোটি টাকা।

ইত্তেফাক/এসআই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: