ভাইরাল হওয়া বার্তাটি ভুয়া, নিশ্চিত করলো ফেসবুক

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছে। যেখানে লেখা ছিল- নতুন নিয়মানুযায়ী অনুমতি ছাড়া ব্যবহারকারীর তথ্য-ছবি ব্যবহার করতে পারবে ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা। এর আগেও গত বছর এমন একটি ভুয়া বার্তা ছড়িয়ে পড়তে দেখা যায়। ছড়িয়ে পড়া এ বার্তাটি ভুয়া বলে জানিয়েছে ফেসবুক।

ফেসবুক মুখপাত্রের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে বার্তা সংস্থা।

এএফপির খবরে বলা হয়, এটি গুজব। ছড়ানো খবরটি মিথ্যা। এমন দাবির কোনো ভিত্তি নেই।

নতুন ভুয়া বার্তাটি বাংলাদেশের পাশাপাশি থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, নিউজিল্যান্ড, ইথিওপিয়া ও সিঙ্গাপুরে বেশি দেখা যাচ্ছে।

ছড়িয়ে পড়া পোস্টে বলা হয়েছে, ‘আগামীকাল থেকে নতুন ফেসবুক/মেটা নিয়ম শুরু হবে, যেখানে তারা আপনার ছবি ব্যবহার করতে পারবে। ভুলে যাবেন না, আজ শেষ দিন! তাই একটা কাজ করে রাখুন। এটিই আপনার বিরুদ্ধে মামলায় ব্যবহার করা যেতে পারে; আপনি যা কিছু পোস্ট করেছেন- এমনকি মেসেজ যা মুছে ফেলা হয়েছে। এতে কোনো খরচ নেই, শুধু কপি করে পোস্ট করুন, পরে আফসোস করার চেয়ে ভালো হবে। ইউসিসি আইনের অধীনে ১-২০৭, ১-৩০৮… আমি আমার অধিকার সংরক্ষণ আরোপ করছি… আমি ফেসবুক/মেটা বা অন্য কোনো ফেসবুক/মেটা সম্পর্কিত ব্যক্তিকে আমার ছবি, তথ্য, বার্তা বা বার্তা ব্যবহার করার অনুমতি দিচ্ছি না, অতীতে এবং ভবিষ্যতে কোনো সময়েই। এই পোস্টটি কপি করে আপনার নিজের পেজে পোস্ট করে রাখুন এবং ঘোষণা দিন যে, আপনি ফেসবুক/মেটাকে তাদের ওয়েবসাইটে পোস্ট করা আমার তথ্য অন্য কোথাও শেয়ার করার অনুমতি দিচ্ছি না। ছবি, বর্তমান বা অতীত, বন্ধু-বান্ধব, ফোন নম্বর, ইমেইল এড্রেস, ব্যক্তিগত কোনো তথ্য বা পোস্ট এসবের কোনো কিছুই আমার লিখিত অনুমতি ছাড়া ভিন্নরূপে ব্যবহার করা যাবে না।’

ফ্যাক্ট-চেকার সাইট পলিটি ফ্যাক্ট বলছে, এ পোস্টটি মূলত গুজব। ফেসবুক বা মেটার পক্ষ থেকে টার্মস অব সার্ভিসের পরিবর্তনের কোনো তথ্য জানানো হয়নি।

এন এইচ, ২৭ নভেম্বর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: