হ্যাকারদের নজরে ছিল ৫০ হাজার ফেসবুক–ইনস্টাগ্রাম–হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাংলাদেশিদের বিভিন্ন একাউন্টের ওপর নজরদারি করে আসছিলেন হ্যাকাররা। বৃহস্পতিবার ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান ‘মেটা’ কর্তৃক প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এমনটাই জানা গেছে।

আড়ি পাতার সফটওয়্যার তৈরিকারক প্রতিষ্ঠান ও তাদের গ্রাহকেরা প্রায় ১০০টি দেশের বিভিন্ন মানুষের কর্মকাণ্ড নজরদারিতে রেখেছে।

মেটা প্রকাশিত ১৭ পৃষ্ঠার প্রতিবেদনে বলা হয়, যে সাতটি প্রতিষ্ঠানের আড়ি পাতার সফটওয়্যার এসব কাজে ব্যবহার করা হয়েছে, সেগুলো হলো যুক্তরাষ্ট্র কবওয়েবস টেকনোলজিস, ব্লুহোয়াক সিআই, কগনাইট, ইসরায়েলের ব্ল্যাক কিউব, উত্তর মেসিডোনিয়ার সাইট্রক্স, ভারতের বেলট্রক্স ও চীনের একটি প্রতিষ্ঠান।

কোন প্রতিষ্ঠান কি কি কার্যক্রম চালিয়েছে তার একটি বিস্তারিত বর্ণনা তুলে ধরা হয়েছে মেটার প্রকাশিত প্রতিবেদনে। মেটা জানিয়েছে,তাদের প্লাটফর্মে থাকা কবওয়েবসের নিজস্ব একাউন্ট এবং তাদের প্রায় ২০০ জন গ্রাহকের একাউন্ট মুছে ফেলা হয়েছে। কবওয়েবসের প্রযুক্তিগুলোর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম, টুইটারসহ ডার্ক ওয়েবেও নজরদারি করা যায় এমন প্রযুক্তিও আছে। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্যও সংগ্রহ করা যায় এইসব প্রযুক্তি ব্যবহার করে। কবওয়েবসের নজরদারিতে রয়েছে বাংলাদেশসহ যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো, সৌদি আরব, হংকং, নিউজিল্যান্ড, পোল্যান্ডসহ অন্যান্য আরো কিছু দেশের নাগরিকেরা।

মেটার এক বিবৃতিতে বলা হয়, নীতিমালা ভঙ্গের দায়ে তাদের প্ল্যাটফর্মে থাকা এ ধরণের প্রায় দেড় হাজার পেজ ও একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এসব পেজ ব্যবহার করে মূলত তথ্য হাতিয়ে নেয়ার কাজ করা হতো।

এম ইউ/১৭ ডিসেম্বর ২০২১

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: