মুশফিক-লিটনদের বিজয় দিবস উদযাপন

ওয়েলিংটন, ১৬ ডিসেম্বর – বাঙালি জাতির হাজার বছরের শৌর্যবীর্য এবং বীরত্বের এক অবিস্মরণীয় দিন আজ ১৬ ডিসেম্বর। বাংলাদেশের মহান বিজয় দিবস। সেই সঙ্গে পালন করা হচ্ছে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। বাংলাদেশের বিজয়ের ৫০ বছর পূর্তি হলো আজ।

তবে দেশের মানুষের সঙ্গে মিলে এই আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে পারছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। কেননা দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে তারা এখন অবস্থান করছেন বাংলাদেশ থেকে হাজার মাইল দূরের নিউজিল্যান্ডে। তবে দূরে থেকেও বিশেষ দিনে উদ্‌যাপন করেছেন তারা। পতাকা হাতে নিয়ে জাতীয় সঙ্গীতে গলা মেলালেন মুশফিক-তাইজুলরা। সবাই এক সঙ্গে গাইলেন, ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি।’

তবে, বিজয়ের দিনে আরেকটি সুখবর পেলেন মুশফিকরা। দলের কোচ রঙ্গনা হেরাথ করোনায় আক্রান্ত হলে সবার মধ্যে যে প্রভাব, সেটা কেটে গেছে। কারণ সবাই করোনা নেগেটিভ হয়েছেন। এমনকি কোয়ারেন্টিনে থাকা নয় জন ছাড়া বাকিরা পেলেন অনুশীলনেরও অনুমতি।

নিউজিল্যান্ড থেকে এক ভিডিও বার্তায় এ সুখবর দিয়ে ভিডিওবার্তায় টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘বিজয়ের পঞ্চাশ বছরে সবাইকে শুভেচ্ছা। আজকে আমাদের কিছু ভালো খবর আছে এখানে। আমরা মাশাআল্লাহ্‌ সবাই নেগেটিভ এসেছি রিপোর্টে। আমাদের সবাইকে অনুশীলনের সুযোগ দিয়েছে। আমি এবং টিম ম্যানেজার নাফিস ইকবাল এ বিষয়ে ওদের সঙ্গে কথা বলেছিলাম যে কীভাবে কী করব? ওরা আজ আমাদেরকে পজিটিভ নিউজ দিয়েছে। আজ অনুশীলনে গিয়েছিলাম, তবে বৃষ্টির কারণে অনুশীলন করতে পারিনি। এখন আমাদের জিম সেশন হবে।’

নিউজিল্যান্ড গিয়ে কোয়ারেন্টিনে আছে বাংলাদেশ দল। মোট ৩০ দলের বহরে করোনা আক্রান্ত হেরাথের সংস্পর্শে যাঁরা এসেছিলেন, তাদের হাতে দেওয়া হয় হলুদ ব্যান্ড। হলুদ ব্যান্ড পরা নয় জন ছাড়া বাকিরা সবাই আজ থেকে মুক্ত। সুজন বলেন, ‘কাল আমরা কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে বেরিয়ে টিম হোটেলে আইসোলেশনে চলে যাবো। যারা ইয়োলো ব্যান ছিল তারা এখানে ২০ তারিখ পর্যন্ত থাকবে। আমরা চলে যাওয়ার পর কাল থেকে ওরা জিম ব্যবহার করতে পারবে। ২১ তারিখ তারা সবাই আমাদের সঙ্গে হোটেলে চেক ইন করবে। রঙ্গনা হেরাথকে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে আলাদা রাখা হয়েছে। বাকিরা সবাই সুস্থ আছে।’

২০২২ সালের ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। প্রথম ম্যাচটি হবে মাউন্ট মঙ্গানুইতে। এরপর ৯ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় টেস্ট। সেটি হবে ক্রাইস্টচার্চে। টেস্ট সিরিজের দুটি ম্যাচই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

সূত্র : সমকাল
এন এইচ, ১৬ ডিসেম্বর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: