বুধবার ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভারত

ঢাকা, ২০ ডিসেম্বর – সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে উঠতে ড্র করলেই চলত মারিয়া মান্দাদের। কিন্তু ড্র নয়, শ্রীলংকাকে গোলবন্যায় ভাসিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ।

রোববার কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ সিপাহি মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে শাহেদা আক্তার রিপা ও আফেইদার হ্যাটট্রিকের সুবাদে শ্রীলংকাকে ১২-০ গোলে হারিয়ে শীর্ষ দল হিসাবে ফাইনালের টিকিট কাটেন মারিয়া মান্দা, আঁখি খাতুনরা। বুধবার ফাইনালে স্বাগতিকদের প্রতিপক্ষ ভারত। ম্যাচের শুরু থেকেই আধিপত্য ছিল লাল-সবুজের মেয়েদের। মাত্র ২ মিনিটের মাথায় বক্স থেকে দারুণ শটে লক্ষ্যভেদ করেন স্বপ্না রানী (১-০)।

মিনিটপাঁচেক পর বাঁ প্রান্ত দিয়ে বাঁ-পায়ের শটে বল জালে জড়িয়ে দলকে দ্বিতীয় গোল উপহার দেন ঋতুপর্ণা চাকমা (২-০)। ১৬ মিনিটে ডান প্রান্ত দিয়ে ঢুকে তৃতীয় গোলটি করেন শাহেদা আক্তার রিপা (৩-০)। ৪৩ মিনিটে আঁখির বাড়িয়ে দেওয়া বল গোলকিপারের মাথার ওপর দিয়ে জালে জড়ান ঋতুপর্ণা (৪-০)। ৪৮ মিনিটে বক্সের বাইরে থেকে দূলপাল্লার শটে আরও একবার শ্রীলংকার জাল কাঁপান আঁখি খাতুন (৫-০)। পরের মিনিটে বাংলাদেশকে আরও এগিয়ে দেন রিপা (৬-০)। ৫৪ মিনিটে দূর থেকে ডান-পায়ের শটে বাংলাদেশের সপ্তম গোলটি করেন আফেইদা (৭-০)।

৭০ মিনিটে বক্সের প্রায় ৪০ গজ দূর থেকে দারুণ শটে গোলকিপারের মাথার ওপর দিয়ে বল জালে জড়িয়ে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন আফেইদা (৮-০)। ৭৭ মিনিটে আনুচিং মোগিনীর গোলে ব্যবধান দাঁড়ায় ৯-০। মিনিটচারেক পর বাঁ প্রান্ত দিয়ে দূরপাল্লার শটে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন আফেইদা (১০-০)। ৮৬ মিনিটে দলের হয়ে ১১তম গোলটি করেন উন্নতি খাতুন (১১-০)। পরের মিনিটে বক্সের ভেতর জটলায় বল পেয়ে ডান-পায়ের শটে বল জালে জড়িয়ে ম্যাচের দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক করেন রিপা (১২-০)।

শেষ পর্যন্ত এক ডজন গোল হজমের লজ্জা নিয়ে টুর্নামেন্ট শেষ করে অতিথি শ্রীলংকা। চার ম্যাচে নয় পয়েন্ট নিয়ে টুর্নামেন্টের প্রথম দল হিসাবে ফাইনালে ওঠে ভারত। এরপর বাংলাদেশ সর্বোচ্চ ১০ পয়েন্ট নিয়ে নিশ্চিত করে ফাইনাল। এবারের আসর রাউন্ড রবিন লিগ পদ্ধতিতে হওয়াতে শীর্ষ দুই দল খেলছে ফাইনালে।

চলতি আসরে ৫ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে উঠে এলেন রিপা।

এর আগে প্রথম দল হিসাবে সাফের ফাইনাল নিশ্চিত করে ভারত। কাল তারা ১-০ গোলে হারায় নেপালকে। ভারতের একমাত্র গোলটি করেন প্রিয়াংকা দেবী। এই ম্যাচের আগে টুর্নামেন্টে কোনো গোল হজম না করা একমাত্র দল ছিল নেপাল। স্বাভাবিকভাবেই তারা ছিল অন্যতম ফেভারিট। কিন্তু সেই দলটিকেই হারিয়ে দিয়ে ফাইনালে নাম লিখিয়ে নিল এতদিন ছিটকে যাওয়ার শঙ্কায় থাকা ভারত।

সূত্র : যুগান্তর
এন এইচ, ২০ ডিসেম্বর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: