নিউজিল্যান্ডকে চাপে রেখেছে বাংলাদেশ

ওয়েলিংটন, ০৪ জানুয়ারি – ব্যাট হাতে দুর্দান্ত খেলার পর বল হাতেও নিউজিল্যান্ডকে চাপে রেখেছে বাংলাদেশ। দ্বিতীয় সেশনের মত তৃতীয় সেশনেও দাপট ধরে রেখেছে বাংলাদেশ। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১৩৭ রান। কিউইদের লিড ৭ রান।

বাংলাদেশকে ৪৫৮ রানে গুটিয়ে দেওয়ার পর ব্যাট করতে নেমেছিল নিউজিল্যান্ড। দ্বিতীয় সেশনের নবম ওভারে টম ল্যাথামের উইকেট তুলে নেন তাসকিন আহমেদ। ইনসাইড এজ হয়ে বল আঘাত হানে স্টাম্পে। তাতে টানা দুই ইনিংসে ব্যর্থ ল্যাথাম ফিরেছেন ১৪ রান করে।

প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন স্বাগতিকদের তিন নম্বরে নামা ডেভন কনওয়ে। তিনি খেলেছিলেন ১২২ রানের ইনিংস। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে তাকে বেশিদূর যেতে দেননি এবাদত ও সাদমান। ব্যক্তিগত ১৩ রান করে এবাদতের বলে সাদমানের তালুবন্দি হন কনওয়ে।

এক ওভার পর ইয়াংকে ফেরাতে পারতো বাংলাদেশ। মিরাজের বলে ক্যাচটি নিতে পারেননি উইকেটরক্ষক লিটন। ফলে ৩১ রানে জীবন পেয়ে যান প্রথম ইনিংসে ৫২ রানের ইনিংস খেলা কনওয়ে।

এর আগে মাউন্ট মঙ্গাইনুয়ে চতুর্থ দিনের খেলায় শেষ চার উইকেটে ৫৭ রান তুলতে পেরেছে বাংলাদেশ দল। আর তাতেই চারটি ফিফটিতে বাংলাদেশের ইনিংস থামল ৪৫৮ রানে। ফলে ১৩০ রানের লিড নিতে পেরেছে টাইগাররা। প্রথম ইনিংসে ১৭৬.২ ওভার ব্যাটিং করেছে বাংলাদেশ। যা নিজেদের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ওভার ব্যাটিংয়ের রেকর্ড। নিউজিল্যান্ডে কোনো সফরকারী দল এর চেয়ে বেশি ওভার ব্যাটিং করতে পেরেছে সবশেষ সেই ২০০৯ সালে। সেবার নেপিয়ারে ১৯৩.২ ওভার ব্যাটিং করেছিল পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের মাটিতে এটি বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান। ২০১৭ সালে ওয়েলিংটনে ৫৯৫ রানে ইনিংস ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ।

ম্যাচের চতুর্থ দিনের খেলায় ব্যাট করতে নামেন আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান ইয়াসির ও মিরাজ। দুজন মিলে খেলেন প্রায় ১৬ ওভার। আর তাতেই লিড একশ ছাড়িয়ে যায়। ব্যক্তিগত ৪৭ রানে টিম সাউদির করা বলে কটবিহাইন্ড হন মিরাজ। এরপর বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি রাব্বীও। ৮৫ বল খেলে ব্যক্তিগত ২৬ রানে কটবিহাইন্ড হন তিনিও। এরপর ৫ রানে তাসকিন এবং ৭ রানে ফেরেন শরীফুল ইসলাম। আর শূন্যরানে অপরাজিত থাকেন এবাদত হোসেন।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ চারটি উইকেট নেন ট্রেন্ট বোল্ট। নেইল ওয়েগনার নেন তিনটি উইকেট। এছাড়া টিম সাউদি দুটি এবং কাইল জেমিসন একটি উইকেট পেয়েছেন।

সূত্র : সমকাল
এন এইচ, ০৪ জানুয়ারি

নিউজিল্যান্ডকে চাপে রেখেছে বাংলাদেশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: