ল্যাথামের ১৫০, বাংলাদেশের হতাশা

ক্রাইস্টচার্চ, ০৯ জানুয়ারি – ক্রাইস্টচার্চে অনুষ্ঠিত দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় এবং শেষ টেস্টে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ব্যক্তিগত সেঞ্চুরির দেখা পেলেন নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক টম ল্যাথাম। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১ উইকেট হারিয়ে কিউইদের সংগ্রহ ২৬৮ রান।

নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টম ল্যাথামের আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশ দলকে প্রথম সেশন কাটাতে হয়েছে উইকেটশূন্য থেকেই। প্রথম ঘণ্টায় সতর্ক ব্যাটিং করলেও দ্বিতীয় ঘণ্টায় দাপট দেখায় নিউজিল্যান্ড। তাতে প্রথম সেশনটা নিজেদের করে নেয় স্বাগতিকরা।

অবশেষে দীর্ঘ অপেক্ষার পর বল হাতে সাফল্য পেল বাংলাদেশ। টাইগার পেসার শরিফুল ইসলামের হাতে মিলল প্রথম উইকেটের দেখা। ইনিংসের ৩৮তম ওভারে উইল ইয়ংকে ফেরালেন তিনি। আউট হওয়ার আগে ৫৪ রান করেন ইয়ং। ১১৪ বলে খেলা ইনিংসটি ৫টি চারে সাজানো। তবে এর আগে ল্যাথামের সঙ্গে ওপেনিং জুটিতে একটা রেকর্ড গড়ে যান ইয়ং। ২০১২ সালের পর প্রথমবার নিউজিল্যান্ডের মাটিতে কোনো ওপেনিং জুটি সেঞ্চুরি ছাড়ায়। সর্বশেষ এমন কিছুর দেখা মিলেছিল ব্রেন্ডন ম্যাককালাম আর মার্টিন গাপটিলের ব্যাটিংয়ে, প্রতিপক্ষ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

এদিকে নিজের অর্ধশতককে শতকে পরিণত করেন কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথাম। মেহেদি হাসান মিরাজের বলে সিঙ্গেল নিয়ে ব্যক্তিগত ১২তম সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি। ১৩৩ বলে ১৭ চারে সাজান সেঞ্চুরির ইনিংসটি। তবে ল্যাথাম আউট হয়ে যেতে পারতেন প্রথম সেশনেই। এবাদতের ব্যক্তিগত প্রথম ওভারে দুইবার এলবিডব্লিউর পর রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান এই বাঁহাতি ওপেনার।

প্রথম এলবিডব্লিউর সময় ল্যাথাম তখন ১৬ রানে। দুই বল পর আবার যখন রিভিউ নিয়ে বেঁচে যান তখন ১৮ রান। এরপর তাসকিন-শরীফুলদের ওপর রীতিমতো চড়াও হন কিউই অধিনায়ক।

এই ম্যাচে দলে নেই মাহমুদুল হাসান জয় এবং মুশফিকুর রহিম। মুশফিকের জায়গা খেলছেন সোহান। অন্যদিকে জয়ের পরিবর্তে মোহাম্মদ নাঈমের শেখের অভিষেক হলো আজ। এ বাঁহাতি ওপেনারই পেয়েছেন বাংলাদেশের ১০০তম টেস্ট ক্যাপ।

এদিকে গ্রোয়েনের ইনজুরিতে ছিটকে গেছেন মুশফিকুর রহিম। তার জায়গায় দলে সুযোগ পেয়েছেন কাজী নুরুল হাসান সোহান। নিউজিল্যান্ড দলেও এসেছে একটি পরিবর্তন রাচিন রবিন্দ্রোর পরিবর্তে দলে ডাক পেয়েছে ড্যারেল মিচেল।

বাংলাদেশ একাদশ:
সাদমান ইসলাম, মোহাম্মদ নাইম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, নুরুল হাসান সোহান, লিটন দাস, ইয়াসির আলি, মেহেদি হাসান, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন ও শরীফুল ইসলাম।

নিউজিল্যান্ড একাদশ:
টম লাথাম, উইল ইয়ং, ডেভন কনওয়ে, রস টেলর, হেনরি নিকলস, টম ব্লান্ডেল, ড্যারেল মিচেল, কাইল জেমিসন, টিম সাউদি, নেইল ওয়াগনার ও ট্রেন্ট বোল্ট।

সূত্র : সমকাল
এন এইচ, ০৯ জানুয়ারি

ল্যাথামের ১৫০, বাংলাদেশের হতাশা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: